শনিবার, ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আবারও ইডির তল্লাশি অভিযানে সরগরম হল রাজ্য

News Sundarban.com :
জানুয়ারি ১৫, ২০২৪
news-image

সপ্তাহের শুরুতেই রেশন দুর্নীতি কাণ্ডে ফের একবার তৎপর হল কেন্দ্রীয় এজেন্সি। চৌরঙ্গী, তালতলা-সহ শহরের চার জায়গায় হানা দিল ইডি।

সন্দেশখালির ঘটনা নিয়ে এমনিতেই উত্তেজনা বহাল আছে বঙ্গে। সেই উত্তেজক পরিস্থিতির মধ্যেই আবারও ইডির তল্লাশি অভিযানে সরগরম হল রাজ্য। সোমবার সকালেই শঙ্কর আঢ্যর সল্টলেকের অফিস সহ বিভিন্ন জায়গায় হানা দিয়েছে ইডি। এই মামলায় ধৃত বনগাঁর প্রাক্তন পুরপ্রধান শঙ্কর আঢ্যের চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট অরবিন্দ সিংহের অফিসেও গিয়েছেন কেন্দ্রীয় আধিকারিকেরা। অরবিন্দের অফিস সল্টলেকে। পাশাপাশি, চৌরঙ্গি এলাকায় আঢ্যদের একটি অফিসে হানা দিয়েছে ইডি।

আদালতে ইডি দাবি করেছিল, শঙ্কর রেশন মামলায় ধৃত রাজ্যের মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক ওরফে বালুর ঘনিষ্ঠ। হাসপাতালে মন্ত্রীর সঙ্গে চিঠির মাধ্যমে শঙ্কর যোগাযোগ রেখেছিলেন বলেও ইডি দাবি করে। সেই চিঠি তাদের হাতে এসেছে। তাতে টাকার হিসাব লেখা ছিল। হাতের লেখা পরীক্ষার বন্দোবস্ত করছে কেন্দ্রীয় সংস্থা।

শঙ্করের ৯০টির বেশি ফরেক্স সংস্থা (বিদেশি মুদ্রা কেনাবেচার সংস্থা) রয়েছে বলে আদালতে দাবি করেছিল ইডি। তবে সেই সংস্থাগুলির সবক’টি শঙ্করের নামে নেই। রয়েছে তাঁর আত্মীয়, পরিজন এবং পরিচিতদের নামে। এই সংস্থার মাধ্যমে অন্তত ২০ হাজার কোটি টাকা শঙ্কর বিদেশে লেনদেন করেছেন বলে দাবি কেন্দ্রীয় সংস্থার। অভিযোগ, টাকা আগে বিদেশি মুদ্রায় (মূলত ডলারে) পরিবর্তন করে তার পর তা দুবাইয়ে পাঠানো হয়েছে। কখনও টাকা সরাসরি দুবাই পৌঁছেছে, কখনও গিয়েছে বাংলাদেশ হয়ে।