শুক্রবার, ১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠনের দিনই নামখানা বিডিও অফিস ঘেরাও করল বিজেপি

News Sundarban.com :
আগস্ট ১০, ২০২৩
news-image

নিজস্ব প্রতিনিধি, নামখানা: বুধবার নামখানা ব্লকের সাতটি গ্রাম পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠন হলো। বোর্ড গঠনের দিনই নামখানা বিডিও অফিস ঘেরাও করল বিজেপির কর্মী সমর্থকরা। নামখানা ব্লকের অন্তর্গত শিবরামপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠনে পঞ্চায়েত প্রধান নির্বাচনে ভোটিং পদ্ধতিতে নামখানা ব্লকের ইলেকশন ওসির বিরুদ্ধে ছাপ্পা ভোট করানো সহ একাধিক কারচুপির অভিযোগ তুলে নামখানা বিডিও অফিস ঘেরাও করে বিজেপির শতাধিক বিজেপি কর্মী সমর্থকেরা।

শিবরামপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের মোট আসন ২৮ টি। যার মধ্যে তৃণমূল জিতেছিল ১৮ টিতে এবং বিজেপি জিতে দশটি আসনে। বিজেপির অভিযোগ, শিবরামপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠনে পঞ্চায়েত প্রধান নির্বাচনের ক্ষেত্রে তৃণমূলের তরফে অর্চনা মাইতি এর নাম প্রস্তাবিত হয়। অপরদিকে বিজেপির তরফে পঞ্চায়েত প্রধান হিসেবে ওই এলাকার অপর এক জয়ী তৃণমূল প্রার্থী অনিতা মন্ডলের নাম প্রস্তাবিত হয়। দুই দল দুজনের নাম প্রস্তাবিত করায় ভোটিং পদ্ধতিতে পঞ্চায়েত প্রধান নির্বাচনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

কিন্তু বিজেপির অভিযোগ, শিবরামপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বোর্ড গঠনে পঞ্চায়েত প্রধান নির্বাচনের জন্য ভোটিং এর সময় নামখানা ব্লকের ইলেকশন ওসি শিবরামপুর গ্রাম পঞ্চায়েত কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে ছাপ্পা ভোট করিয়ে তৃণমূল সমর্থিত প্রার্থী অর্চনা মাইতিকে পঞ্চায়েত প্রধান হিসেবে ঘোষণা করেন। সেই সঙ্গে পঞ্চায়েত কার্যালয় থেকে জয়ী বিজেপি প্রার্থীদের সহ পঞ্চায়েত প্রধান হিসেবে বিজেপির প্রস্তাবিত প্রার্থী অনিতা মন্ডলকে বাইরে বের করে দেওয়া হয়। তারই প্রতিবাদে আজ নামখানা বিডিও অফিস ঘেরাও করে বিজেপির শতাধিক বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। ঘটনাকে ঘিরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে নামখানা বিডিও অফিস চত্বর।

প্রায় ঘন্টাখানেক ধরে বিডি অফিসের মূল গেটের সামনে চলে বিক্ষোভ। খবর পেয়ে ঘটনার স্থলে পৌঁছায় নামখানা থানার পুলিশ। তবে কিছুক্ষণের মধ্যেই সেই বিক্ষোভ তুলে নেন বিজেপি কর্মী সমর্থকরা।