শুক্রবার, ২রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

নামখানা ব্লকে দুস্থ ও মেধাবী ছাত্রীকে দেওয়া হলো বই ও স্কলারশিপ 

News Sundarban.com :
অক্টোবর ২৫, ২০২২
news-image

নিজস্ব প্রতিনিধি, নামখানা : শ্যামা পূজোর দিন দক্ষিণ চন্দনপিড়ী বালক সংঘের আয়োজনে ও দক্ষিণ চন্দন পিড়ি বিবেকানন্দ ওয়েলফেয়ার সোসাইটির উদ্যোগে কাকদ্বীপ অচেনা সুখের সহযোগিতায় দুস্থ ও মেধাবী ছাত্রী সুজাতাকে বই ও স্কলারশিপ দেওয়া হলো।

দক্ষিণ 24 পরগনার নামখানা ব্লকের উত্তর চন্দনপিড়ীর মেধাবী ছাত্রী সুজাতা সামন্তের টাকার অভাবে বন্ধ হতে বসেছিল পড়াশোনা। সুজাতা এই বছর উচ্চ মাধ্যমিকে ৫০০ এর মধ্যে ৪৮০ পেয়েছে। এমত অবস্থাতে ভালো নাম্বার পেয়েও নিত্যদিনের সংসারে অর্থের অভাবে বাধা হয়ে দাঁড়ায় আগামীদিনের পড়াশোনা। কি ভাবে পূরণ হবে তাঁর স্বপ্ন । সে আবার পরবর্তী অধ্যায় শুরু করবে কি ভাবে। ভেবেও কুল পাচ্ছিলেন না সুজাতা সামন্ত। এমন অবস্থাতে

খবর আসে দক্ষিণ চন্দনপীড়ী বিবেকানন্দ ওয়েলফেয়ার সোসাইটির সম্পাদক অধ্যাপক ড. শান্তনু বেরার কাছে। উনার মাধ্যমে রোটারি ক্লাব চন্দননগর, কাকদ্বীপ অচেনা সুখ, ঢাকুরিয়া মানসি দ্যা হিলিং টাচ ও চেতলা বিবেকানন্দ যুব কল্যাণ কেন্দ্রর সাথে সাহায্যের জন্য যোগাযোগ করা হয়। এই টানা পোড়ণের মধ্যেও সুজাতা লেডি ব্রেবর্ন কলেজে ভর্তি হয়েছে অঙ্ক নিয়ে। এদিন “অচেনা সুখ” এর পক্ষ থেকে অনার্সের তিনটি পাঠ্য বই সুজাতার হাতে তুলে দেওয়া হয়। তাছাড়া একটি মাসিক স্কলারশিপ আজ থেকে দেওয়া শুরু হয়। যার দাতা কলকাতা নিবাসী মন্দিরা গুহ বিশ্বাস, প্রযত্নে প্রিয়ব্রত গুহ বিশ্বাস।

আজকের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষক ও সমাজসেবী রবীন্দ্র নাথ বেরা, অচেনা সুখের পক্ষে অমিত মান্না ও সমীর সাহা, পুজো কমিটির পক্ষে রিতা মানিক মাইতি, সংগঠনের পক্ষে অনুপ মাইতি, প্রদীপ ওঝা, কৃষানু বেরা, সুকুমার দাস, নবকুমার গায়েন প্রমুখ এবং সম্পাদক ড. শান্তনু বেরা। অধ্যাপক বেরা বলেন যে “আমাদের সংগঠন সীমিত সাধ্যের মধ্যে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ, মানুষের জীবন জীবিকা, শিক্ষা স্বাস্থ্যর প্রতি সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সংগঠন পাশে থাকে।” এই বছর আপাতত তিন জন ছাত্রীকে উচ্চ শিক্ষার জন্য স্কলারশিপ প্রদান করার ব্যবস্থা হয়েছে বলে উনি জানান। সুজাতাকে আগামী সপ্তাহে আরো কয়েকটি বই দেওয়া হবে বলেও উনি জানান। উনি আরো বলেন, আগামী বছরের প্রথম মাস থেকে দক্ষিণ কলকাতা বিবেকানন্দ যুব কল্যাণ কেন্দ্রের সহায়তায় সুজাতাকে আরো একটি বৃত্তি প্রদান করা হবে।