মঙ্গলবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

নাচ গানের মধ্যে দিয়ে পালিত হল বিশ্ব আদিবাসী দিবস

News Sundarban.com :
আগস্ট ৯, ২০২২
news-image

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঝড়খালি :  প্রত্যন্ত সুন্দরবনে ঝড়খালি কোষ্টাল থানার উদ্যোগে এক পদযাত্রা ও আদিবাসী নাচ গানের মধ্যে দিয়ে পালিত হল বিশ্ব আদিবাসী দিবস।মঙ্গলবার ঝড়খালি কোষ্টাল থানার অন্তর্গত চৌধুরী মোড় আদিবাসী অধুষ্যিত এলাকা বিশ্ব আদিবাসী দিবস অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ঝড়খালি কোষ্টাল থানার আধিকারিক প্রদীপ কুমার রায়,এএসআই রাজু মন্ডল, পিএসআই রাজদ্বীপ দাস,হারান সরদার,মনসা সরদার,অজিত সরদার সহ আদিবাসী সমাজের বিশিষ্টজনেরা।

উল্লেখ্য ৯ আগস্ট, বিশ্ব আদিবাসী দিবস। হ সমগ্র বিশ্ব আদিবাসীদের প্রচুর অবদান রয়েছে। নানান ইস্যুতে তাঁদের অবদান প্রচুর।সেই কারণেই প্রতিবছর বছর ৯ অগাস্ট দিনটি পালিত হয় বিশ্ব আদিবাসী দিবস হিসেবে ।  ১৯৯৪ সালে ২৩ ডিসেম্বর রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ অধিবেশনে সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়, ৯ অগাস্ট দিনটিকে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা আদিবাসীদের দিন হিসেবে পালন করা হবে। ১৯৮২ সালে জেনেভায় রাষ্ট্রসংঘের আদিবাসীদের ওপর ওয়ার্কিং গ্রুপ দিনটিকে স্বীকৃতি দিয়েছিল।

রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ অধিবেশনে বিশ্বের আদিবাসীদের জন্য আন্তর্জাতিক বছর হিসেবে ঘোষণা করা হয় ১৯৯৩ সালকে। সেই বছরই বিশ্বের আদিবাসীদের জন্য আন্তর্জাতিক যুগ ঘোষণা করা হয়। যেটা ১৯৯৪ সালের ১০ ডিসেম্বর থেকে শুরু হয়। আদিবাসীদের দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক যুগ ঘোষণা করা হয় ২০০৫ থেকে ২০১৫ সালকে।
বিশিষ্ট সাহিত্যিক মহাশ্বেতা দেবীর কথাসাহিত্যের একটি বড় অংশ জুড়ে আদিবাসী মানুষ। যা কিনা আদীবাসীর সমাজের প্রতিটি মানুষের হৃদয়ে গেঁথে রয়েছে।

পৃথিবী যখন তথাকথিত সভ্য হয়ে এসেছে, ঠিক সেই সময় ভারতীয় উপমহাদেশের আদি জনগোষ্ঠী আদিবাসীদের অসভ্য বলে, নীচ বলে ঘৃণা করা হয়েছে। আদিবাসীরা অনেক সময়ই চুপ করে এসব সহ্য করেছেন। যখন অন্যায়-নির্যাতন সীমা ছাড়িয়েছে, তখন আদিবাসীরা সংঘবদ্ধ হয়ে বিদ্রোহ করেছেন।এক সময় ইংরেজ শাসকদের ভিত নড়িয়ে দিয়েছিল। তত্কালীন ভারতের ছোটনাগপুরের সিংভূম, রাঁচি, পালামৌ জেলাগুলোয় মুন্ডাসহ অন্য আদিবাসীদের ঘনবসতি ছিল।

ইংরেজদের হাতের মুঠ থেকে দেশমাকে স্বাধীন করার জন্যে বন্দুকের সামনে তীর-ধনুক নিয়ে লড়াই করতে নেমে পড়েছিলেন বীর যোদ্ধা বীরসা মুন্ডা। ভারত উপমহাদেশে আদিবাসীদের মুক্তির জন্য যুগে যুগে যত মহান নেতা অবতীর্ণ হয়েছেন তাঁদের মধ্যে বিরসা মুন্ডা অন্যতম এক নাম।যাঁকে আজও আজও দেবতার আসনে বসিয়ে পুজো করেন।