মঙ্গলবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

সমগ্র সুন্দরবন জুড়ে ব্লকে ব্লকে চলছে কুইজ কার্নিভাল

News Sundarban.com :
আগস্ট ৭, ২০২২
news-image

ঝোটন রয়, কাকদ্বীপ: সুন্দরবন কুইজ ফোরামের আয়োজনে কাকদ্বীপ শিশু শিক্ষায়তন হাই স্কুলে অনুষ্ঠিত হলো কুইজ কার্নিভাল। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রয়াণ দিবসে তাঁকে স্মরণ করে প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে এবং প্রদীপ জ্বেলে আজ এই কুইজ কার্নিভালের শুভ সূচনা হয়। কাকদ্বীপ ব্লকের ৫৪ টি স্কুল এই কার্নিভালে অংশগ্রহণ করে। এখানে প্রাথমিক স্তর থেকে মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিকের ছাত্র-ছাত্রীরা এই কুইজ কার্নিভালে অংশ নেন। সকাল ৯ টা থেকে এই কার্নিভাল অনুষ্ঠান শুরু হয়।

এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সুন্দরবন কুইজ ফোরামের সভাপতি প্রদীপ কুমার প্রামানিক, সম্পাদক সঞ্জয় মাইতি, সুব্রত পাত্র, অনিমেষ ঘরামী, দেবাশীষ পন্ডা, অরুণ চক্রবর্তী, সৌগত প্রধান, কৌস্তুভ কান্তি দাস, সমাজসেবী বিদ্যুৎ কুমার দিন্দা, বিশ্বজ্যোতি মাইতি, শ্যামসুন্দর দাস, মলয় চক্রবর্তী, কুইজ মাস্টার সন্ধিপন দাস, অতনু রায়, সমীরন জানা, উপস্থিত ছিলেন চিফ গেস্ট পশ্চিমবঙ্গ প্রাণী ও মৎস্য বিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডক্টর শান্তনু বেরা।

এই প্রসঙ্গে সুন্দরবন কুইজ ফোরামের সম্পাদক সঞ্জয় মাইতি বলেন, ‘আমাদের এই কুইজ কার্নিভাল সুন্দরবন শুধু নয়, দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা জুড়ে সাড়া ফেলে দিয়েছে। মূলত আমাদের কাকদ্বীপ সাব ডিভিশনের আমরা এই কুইচ ফোরাম প্রোগ্রামটি আজ চালু হয়েছে। প্রথমে চালু করেছিলাম নামখানা ব্লক কুইজ কার্নিভাল। তারপর আজ কাকদ্বীপ শিশু শিক্ষায়তন হাই স্কুলে কুইজ কার্নিভাল হলো। তারপর আমরা পাথরপ্রতিমা এবং সাগর ব্লকে এই কুইজ কার্নিভাল অনুষ্ঠান করব ।’

তিনি আরো বলেন, ‘এই সুন্দরবন এলাকার ছেলেমেয়েরা এই দিকটাতে অনেকটা পিছিয়ে। আমাদের মূল মন্ত্র হলো ‘জ্ঞান যেথা মুক্ত’। জ্ঞান চর্চার কোনো সীমা বা পরিসীমা নেই। সেখানে আমাদের ছেলেরা পিছিয়ে থাকবে কেন। জানার প্রবল ইচ্ছা নিয়ে এখানে অংশগ্রহণ করো। যে যত জানতে চাও এই কুইজ কার্নিভালে অংশ নাও। আগামী দিনে যখন ছেলে মেয়েরা বিভিন্ন কম্পিটিটিভ পরীক্ষায় বসবে তখন তাদের এটি খুব কাজে লাগবে।’

মহামারী করোনাভাইরাস যেভাবে সারা বিশ্বকে গ্রাস করল সেক্ষেত্রে স্কুল কলেজ থেকে অফিস আদালত ছিল বন্ধ। দু’বছর স্কুল কলেজ বন্ধ থাকার ফলে পড়াশোনা থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিল ছাত্র-ছাত্রীরা। যার ফলে সেই জ্ঞানের আলো জ্বালাতে আজ এই সুন্দরবন কুইজ ফোরামের কুইজ কার্নিভাল ব্লকে ব্লকে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

এই প্রসঙ্গে ডক্টর শান্তনু বেরা বলেন, ‘বর্তমান আমাদের এই চারখানা ব্লকে কুইজ কার্নিভাল অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আমি চাই দক্ষিণ ২৪ পরগনার প্রতিটি ব্লকে ব্লকে যাতে এই কুইজ কার্নিভাল করা হয়। এতে যে শুধু কুইজটাই শিখবে সেটা নয়, পড়াশোনার প্রতিও ছাত্র-ছাত্রীদের আগ্রহ থাকবে। এর ফলে ছাত্র-ছাত্রীদের মোবাইলের প্রতি আসক্ত অনেকটাই কমবে। ২০২০ সালের যখন কভিড সিচুয়েশন হল তখন ছাত্রছাত্রীরা পড়াশোনা থেকে দূরে সরে যাচ্ছিল। সেই জন্যই তাদেরকে পড়াশুনোর গণ্ডির মধ্যে যাতে আনা যায় তার একটা দিক হলো এই কুইজ কার্নিভাল। এই কুইচ কার্নিভাল এখন সাফল্যের দিকে এগোচ্ছে। এখানে আমাদের মূলত বেশিরভাগ কোনো থিম নিয়ে আমরা এই কুইজ কার্নিভালটি উপস্থাপন করি। আগামী দিনে বিশেষ কিছু থিম যেমন বনসৃজন, সুন্দরবন বাঁচাও, পরিবেশ দূষণ রোধ, এইরকম থিম যাতে যেন কুইজ কার্নিভালে থাকে তাহলে সুন্দরবনের ছাত্র-ছাত্রীদের আরো সুন্দরবন বিষয়ে বেশি জানতে পারবে।’