শুক্রবার, ১৯শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

রেঞ্জ অফিসের উদ্যোগে বনমহোৎসব পালিত হল নামখানা ব্লকে

News Sundarban.com :
জুলাই ২১, ২০২২
news-image

ঝোটন রয়, নামখানা: অরণ্য সপ্তাহ উপলক্ষে চলছে সুন্দরবন জুড়ে বনমহোৎসব। নামখানা ব্লকে বন আধিকারিকদের উদ্যোগে পালিত হল বনমহোৎসব। প্রত্যন্ত সুন্দরবনের নামখানা ব্লকের বুধাখালি গ্রাম পঞ্চায়েতের ফটিকপুর উচ্চ বিদ্যালয় এবং ফটিকপুর অ:প্রা: বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা এই বনমহোৎসবে অংশ নেয়। পতাকা উত্তোল ও প্রদীপ জ্বেলে অনুষ্ঠানের শুভারম্ভ হয়। সুন্দরবনের বিভিন্ন জায়গায় বৃক্ষ রোপণ এর মধ্যদিয়ে পালিত হচ্ছে বনমহোৎসব।

এদিনের এই অনুষ্ঠানে সুন্দরবনের ছাত্র-ছাত্রী, থেকে শুরু করে এলাকার সাধারণ মানুষ বনমহোৎসবে যোগ দেয়। সুন্দরবন কে রক্ষার জন্য অঙ্গীকার বদ্ধ হয়ে প্রায় দু-কিলোমিটার পথ পদযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। পদযাত্রার মাধ্যমে এলাকার সাধারণ মানুষকে সচেতন করা হয়। পদযাত্রা শেষে ওই এলাকার বেশ কয়েকটি জায়গায় ম্যানগ্রোভ চারাগাছ রোপন করা হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনার সহকারি বনধিকারী চিন্ময় বর্মন, উপস্থিত ছিলেন নামখানা রেঞ্জ অফিসার ওয়াসিম দন্ডপাট, ডিআরএফআর নিখিল কুমার ভূঁঞ্যা, ছিলেন বুধাখালি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান বানেশ্বর দাস সহ প্রমুখ ব্যক্তিবর্গ।

এই প্রসঙ্গে ডিআরএফআর নিখিল কুমার ভূঁঞ্যা বলেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগ আমফান থেকে শুরু করে বুলবুল এমনকি ঈয়াসের দাপটে সুন্দরবনের বেশিরভাগ বনাঞ্চল নষ্ট হয়ে গেছে। তাই আমাদের বাঁচার তাগিদে নিজেদের প্রয়োজনে সুন্দরবনকে বাঁচাতে গেলে আমাদের দরকার প্রচুর পরিমাণে গাছ লাগানো। আমাদের সবাইকে ঝাঁপিয়ে পড়ে গাছ কাটার প্রতিরোধ করতে হবে। কোনরূপভাবে গাছ কাটা চলবে না।

এই প্রসঙ্গে বুধাখালি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান বানেশ্বর দাস বলেন, বিগত ১০ থেকে ১৫ বছরের মধ্যে প্রাকৃতিক দুর্যোগে সুন্দরবনে প্রচুর গাছপালা নষ্ট হয়েছে। ফলে এই বনমহোৎসব এর মধ্য দিয়ে গাছ লাগানোর পরিকল্পনায় সাড়া দিয়েছে স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী থেকে শুরু করে এলাকার জনমানুষ। এই অনুষ্ঠানে ছাত্র ছাত্রীদের মধ্যে চারা গাছ বিতরণ, অংকন প্রতিযোগিতা থেকে শুরু করে বিভিন্ন সংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে মুখরিত হয়ে উঠেছিল এই বনমহোৎসব।