শনিবার, ২৮শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

প্রজাতন্ত্র দিবস পালিত হবে প্রধান অতিথিহীনভাবেই

News Sundarban.com :
জানুয়ারি ১৮, ২০২২
news-image

বিশ্বের পাশাপাশি ভারতও করোনা ও ওমিক্রনের দাপটে বিপর্যস্ত। পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলেও দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা এখনও ২ লক্ষের ওপরেই রয়েছে। বাড়ছে ওমিক্রনও। এই আবহে দ্বিতীয়বারের জন্য প্রজাতন্ত্র দিবসে পালিত হবে প্রধান অতিথিহীনভাবেই।

২০২১ সালেও করোনা পরিস্থিতিতে কোনও প্রধান অতিথি প্রজাতন্ত্র দিবসে উপস্থিত থাকতে পারেননি।  সূত্রের খবর, এবছর ২৬ জানুয়ারির অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে আমন্ত্রণ জানান হয়েছিল এশিয়ার পাঁচ জন নেতাকে। যদিও বিদেশমন্ত্রকের তরফে সরকারিভাবে কিছু প্রকাশ্যে জানান হয়নি। ২০২১ সালে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকার জন্য আমন্ত্রণ জানান হয়েছিল।

কিন্তু সেই সময় ব্রিটেনের কোভিড পরিস্থিতি এতটাই সঙ্কটজনক অবস্থার মধ্যে ছিল যে তিনি অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে পারেননি। তবে শুধু করোনাকালেই নয়, এর আগে ১৯৫২, ১৯৫৩ এবং ১৯৬৬ তেও প্রজাতন্ত্র দিবস অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়েছিল প্রধান অতিথিকে ছাড়াই। ১৯৬৬তে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী লাল বাহাদুর শাস্ত্রীর তাসখন্দে মৃত্যুর পর ২৪ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ গ্রহণ করেছিলেন ইন্দিরা গান্ধী।

সে বছর তাই প্রধান অতিথি পদে আমন্ত্রণ জানানর সময় ছিল না। যদিও এই মাসেই এশিয়ার একাধিক রাষ্ট্রনেতাদের সঙ্গে বৈঠক রয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের।  কোভিডকালে ভার্চুয়াল মিটিং এবং টেলি কথোপকথনেই সেই বৈঠক হতে পারে বলে সরকারি সূত্রের খবর।

অন্যদিকে, ৭৫ বছরে প্রথমবার প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেড নির্ধারিত সময়ে সকাল ১০ টায় শুরু হবে না। কোভিড -19 বিধিনিষেধ এবং জম্মু ও কাশ্মীর নিরাপত্তা কর্মীদের শ্রদ্ধার কারণে ৩০ মিনিট বিলম্বিত হবে।

এক উচ্চপদস্থ পুলিস আধিকারিক জানিয়েছেন, প্রতি বছর প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজ সকাল ১০টায় শুরু হলেও এ বছর শুরু হবে সকাল সাড়ে ১০টায়।-zee24

আরও দেখুন