শুক্রবার, ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সঙ্গীদের সামনে থেকে বাঘে তুলে নিয়ে গেল মৎস্যজীবীকে, টের পেল না কেউ

News Sundarban.com :
আগস্ট ২৩, ২০২১
news-image

বিশ্লেষণ মজুমদার, ক্যানিং –আবারও বাঘের আক্রমনে নিখোঁজ হল এক মৎস্যজীবী।নিখোঁজ মৎস্যজীবীর নাম নিরঞ্জন কয়াল( ৫১)।ঘটনাটি ঘটেছে সুন্দরবনের মরীচঝাঁপি জঙ্গলের কাঁকসা খালে। স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে গোসাবা ব্লকের সুন্দরবন কোস্টাল থানার অন্তর্গত সাতজেলিয়ার আনন্দপুর গ্রামের মৎস্যজীবী নিরঞ্জন কয়াল। চারজন সঙ্গী মৎস্যজীবী মনোরঞ্জন মন্ডল, কিশোরী মন্ডল, তরুবালা মন্ডল ও কমলা মন্ডলদের কে নিয়ে রবিবার সকাল সাতটা নাগাদ সুন্দরবন জঙ্গলের উদ্দেশ্য রওনা দিয়েছিলেন কাঁকড়া ধরার জন্য।

প্রায় সকাল দশটা নাগাদ সুন্দরবনের কাঁকসা খালের জঙ্গলে পৌঁছে নৌকা থেকে নেমে কাকড়া ধরতে শুরু করে তারা।সেই সময় আচমকা সুন্দরবন জঙ্গল থেকে একটি বাঘ বেরিয়ে আসে। নিরনঞ্জ কয়ালের ঘাড়ের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। সঙ্গে সঙ্গে ঘাড়ে কামড় দিয়ে টানতে টানতে সুন্দরবনের গভীর জঙ্গলে নিয়ে যায়। অন্যান্য সঙ্গীরা কোন কিছুই টের পাননি। সঙ্গীরা নিরঞ্জনের কোন প্রকার খোঁজ না পেয়ে হতাশ হয়ে গ্রামে ফিরে এসে দুর্ঘটনার কথা জানায় তার পরিবার ও পাড়া প্রতিবেশীদের।

এমন খবর গ্রামে চাউর হতেই এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।বাড়িতে স্ত্রী নমিতা কয়াল স্বামী নিখোঁজের সংবাদ শুনে শোকে কান্নায় ভেঙে পড়ে।অন্যদিকে বাবা নিখোঁজ হয়েছে খবর শুনে বিবাহিত দুই মেয়ে মল্লিকা ও মালতি চলে আসে বাপের বাড়িতে।

মনোরঞ্জন মন্ডল জানিয়েছেন “আমাদের কোন বৈধ অনুমতি ছিল না। তবুও শুধু পেট চালানোর জন্য আমরা জঙ্গলে গিয়ে ছিলাম তাতেই এমন বিপত্তি ঘটেছে।”

উল্লেখ্য গত বৃহষ্পতিবার সুন্দরবন জঙ্গলে কাঁকড়া ধরতে গিয়ে বাঘের আক্রমণে প্রাণ হায় অন্ন দাস(৩৫) নামে এক মৎস্যজীবী।