শুক্রবার, ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

পারিশ্রমিকের টাকা কম, প্রতিবাদ করায় দীনমজুর কে বেধড়ক মারধর, জখম ৩

News Sundarban.com :
আগস্ট ২২, ২০২১
news-image

নিজস্ব প্রতিনিধি, ক্যানিং – পারিশ্রমিকের টাকা কম দেওয়ায় প্রতিবাদ করায় তিন জন দীনমজুর কে বেধড়ক মারধর করার অভিযোগ উঠলো কয়েকজন ব্যক্তির বিরুদ্ধে।ঘটনায় গুরুতর জখম তিনজন দীনমজুর ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এবিষয়ে ক্যানিং থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনজন দীনমজুর। অভিযোগ পেয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। যদিও এখনও পর্যন্ত অভিযুক্তদের কে আটক কিংবা গ্রেফতার করতে পারেনি ক্যানিং থানার পুলিশ।

করোনা আর ইয়াসের দাপটে জর্জরিত সমগ্র সুন্দরবন এলাকা। নুন আনতে পান্তা ফুরানোর জোগাড়। এমত অবস্থায় ভীন রাজ্যে কাজে যাওয়ার ইচ্ছা থাকলেও অর্থ সংকট করোনা আর লকডাউনের জেরে ভীন রাজ্যে যাওয়া হয়ে ওঠেনি। অগত্যা পরিবার পরিজনের মুখে দুমুঠো অন্ন তুলে দেওয়ার জন্য এলাকায় দীনমজুরের কাজ বেছে নেয় ক্যানিং থানার অন্তর্গত ইটখোলা গ্রাম পঞ্চায়েতের বৈকুন্ঠপুর গ্রামের প্রহ্লাদ,নিতাই ও উত্তম শিকারীরা।

শুক্রবার স্থানীয় রবীন নস্করের জমিতে ধান রোয়ার কাজ করতে যায় প্রহ্লাদ,নিতাই ও উত্তমরা।যুক্তি ছিল দৈনিক ৬০০ টাকা মজুরী দেবেন।সেই মতো শুক্রবার কাজ শেষ করে মজুরীর টাকা চায় ওই তিন দীনমজুর।অভিযোগ সেই সময় প্রাপ্য চুক্তির টাকা না দিয়ে ২০০ টাকা করে কম দেয়। বলা হয় ৪০০ টাকার বেশী দেওয়া সম্ভব নয়।কেন টাকা কম দেওয়া হবে এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানায় তিন দীনমজুর। অভিযোগ সেই সময় লাঠি দিয়ে তিনজন দীনমজুর কে বেধড়ক মারধর করে জমির মালিক রবি,ভাস্কর,প্রশান্ত ও দীপক নস্কররা। জমির মালিকের মারে গুরুতর জখম হয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় লুটিয়ে পড়ে তারা।

স্থানীয়রা জখম দীনমজুরদের কে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানেই তিনজন দীনমজুরের চিকিৎসা চলছে। অন্যদিকে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ক্যানিং থানার পুলিশ।