মঙ্গলবার, ২৭শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

আট যুগ পরে কৃষকরা পেল সমবায় ব্যাংক

News Sundarban.com :
জুলাই ২, ২০২১
news-image

নিজস্ব সংবাদদাতা, বসিরহাট:  সীমান্তে আট যুগ পরে কৃষকরা পেল সমবায় ব্যাংক, স্বরূপ দহ উত্তরপাড়া সমবায় ব্যাংক স্বীকৃতি। কৃষক মহলে খুশির হাওয়া ৮১,বছরের প্রতিষ্ঠান আধুনিক ভাবে পেল সীমান্তের কৃষক সমাজ।

পশ্চিমবাংলা রাজ‍্যের মধ্যে উওর 24 পরগনা জেলার মধ্যে স্বরুপনগর কে শস্য ভান্ডার বলা হয়। এখানকার সবজি ফসল রাজ্য ছাড়িয়ে ভিন রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় জায়গায় করে নিয়েছে।

বসিরহাট মহাকুমার স্বরূপনগর ব্লকের হাকিমপুর ভারত-বাংলাদেশ স্বরূপ দহ উত্তরপাড়া সমবায় কৃষি উন্নয়ন সমিতি নবরূপে সজ্জিত হলো, আজ এটা ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট কো-অপারেটিভ ব্যাংক এ পরিণত হল ।তাদের পথচলা শুরু হয়েছিল ১৯৩৯ সালে, ঐ ব‍্যাঙ্কের পরিকাঠামো তৈরী করতে বরাদ্দ হয়েছিল ২,২০০ টাকা, একটি হারিকেন ও একটি কাঠের আলমারি, একজন কর্মী নিয়ে ঐ সমিতি পথ চলা শুরু করেন।

আজ শুক্রবার সকাল বেলা ঐ সমিতির শুভ উদ্বোধন করলেন উত্তর ২৪ পরগনা জেলা সভাধিপতি স্বরূপ নগরের বিধায়ীকা বিনা মন্ডল, ব্যাঙ্ক ম্যানেজার রবিউল ইসলাম সহ প্রশাসনিক আধিকারিকরা ।

বর্তমানে ব্যাংকের আমানত দাঁড়িয়েছে ৩, কোটি টাকা ব্যাংকের ম্যানেজার অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার সহ ৭, জন কর্মী।

উওর 24 পরগণা জেলার স্বরূপনগর ব্লকটি বসিরহাট মহাকুমারের মধ্যে কৃষি ভান্ডার বলে পরিচিত, তাই কৃষকদের কাছে এটি একটি বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। তাই এখানকার স্বরুপদহ, উত্তরপাড়া, হাকিমপুর, বিথারী সহ বেশ কয়েকটি গ্রামের কয়েক হাজার কৃষক তারা ব্যাংকের মাধ্যমে ঋণ নিতে পারবেন, পাশাপাশি অন্য সুবিধা পাবেন এছাড়া স্বনির্ভর গোষ্ঠী মহিলারাও এই ব্যাংকের সঙ্গে যোগদান করতে পারবেন।

বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ হল কৃষকরা যখন বাজারে সঠিক মূল্য না পাবে, সেই ফসল সমবায় ব্যাংকে রাখলে ৭৫%থেকে ৮০%শতাংশ দামে বিক্রি করতে পারবে। পাশাপাশি কৃষকরা ফসল মজুদ করে ব্যাংকের নির্ধারিত ঘরে রেখে নির্দিষ্ট সময় সঠিক মূল্যে বাজারে বিক্রি করতে পারবে এই সুবিধা দিচ্ছে ব্যাংক। পাশাপাশি একদিকে যেমন কৃষকরা কিষান ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে লোন নিতে পারবেন। অন্যদিকে ধানের বীজ, সরষের তেল সহ একাধিক ফসলের বীজ ব্যাংকের মাধ্যমে বিনা মূল্যে পাবেন।

ভীষণ খুশি সমবায় ব্যাংকের গ্রাহক কৃষকদের ফসল মজুদ করার জায়গা রয়েছে সেখানে শস্যভান্ডার মধ্য থেকে তারা তাদের ফসল নির্ধারিত সময় সামান্য ভাড়া দিয়ে সঠিক মূল্যে বিক্রি করতে পারবে, এই ধরনের সুযোগ-সুবিধা করে দেয়ার জন্য কৃষকরা ভীষণ খুশি এবং এবং ভীষণ উপকৃত হবে বলে জানান ।

স্বরূপনগরের বিধায়িকা বিনা মন্ডল বলেন, খুব ভালো লাগছে প্রত্যন্ত গ্রাম সীমান্তবর্তী এলাকার পিছিয়ে পড়া মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর অনুপ্রেরণায় 81 বছর পর এই ব্যাংক নতুন রূপে সুসজ্জিত হল। এখান থেকে সুবিধা পাবে কৃষক থেকে শুরু করে কন্যাশ্রী এবং রূপশ্রীর মতো সুবিধার সাথে সাথে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারাও এখান থেকে তাদের বিভিন্ন ধরনের আর্থিক সুবিধা পাবেন।

স্বরূপনগরের সমবায় ব্যাংকের ম্যানেজার রবিউল ইসলাম বলেন, আমাদের এই ব্যাংক থেকে কৃষকরা বিভিন্ন ধরনের বিজ যেমন ধানের বীজ, পাটের বীজ এখান থেকে দিয়ে থাকি। তার পাশাপাশি কিষান ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে কৃষকদের জমিতে ফসল তৈরি করার জন্য তাদের ঋণ দেওয়া হয়। তিনি আরো বলেন কৃষকরা ফসল নিয়ে বাজারে গিয়ে দাম পাচ্ছে না ওই ফসল আমাদের কাছে বিক্রি করলে আমরা সেটা কিনব এবং উপযুক্ত মূল্য দেবো তাছাড়া কৃষকরা সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা এই সমবায় ব‍্যাঙ্কথেকে পাবেন।