বৃহস্পতিবার, ৯ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

৮ দফায় ত্রিমুখী এই লড়াইয়ে শেষ হাসি হাসবে কে

News Sundarban.com :
মে ২, ২০২১
news-image

মমতা-মোদীর লড়াইয়ের মাঝে রয়েছে কংগ্রেস, আইএসএফ ও বামেদের জোট – সংযুক্ত মোর্চা। বিজেপি ও তৃণমূলকে একাসনে বসিয়ে প্রচার চালিয়ে গিয়েছে তারা। তৃণমূল ও বিজেপির কমান্ড যদি থাকে দুই তুখোড় রাজনীতিকের হাতে, বামেরা ভরসা রেখেছে তারুণ্যে। সৃজন, মীনাক্ষীদের প্রার্থী করে তারুণ্যের জয়গান বামদের তালিকায়। তার সঙ্গে যোগ হয়েছে ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্টের আব্বাস সিদ্দিকি। সংখ্যালঘু ভোটের ক্ষেত্রে ফ্যাক্টর হতে চলেছেন ফুরফুরা শরিফের ‘ভাইজান’।

গোটা বাংলা তো বটেই দেশের চোখও এখন দেড় মাসের ‘খেলা’র ফলাফলের দিকে। এই রবিবার হতে চলেছে মারমার কাটকাট।  বিজেপি বলেছিল, ‘আসল পরিবর্তন’। ‘বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়’ বলে মাঠে নেমেছিল তৃণমূল। আর এক দল বলেছে, ‘বিকল্প আমরাই’। ৮ দফায় ত্রিমুখী এই লড়াইয়ে কে শেষ হাসি হাসবে? তার উত্তর মিলবে আর কয়েক ঘণ্টা পরেই। বাংলায় কোনওকালেই বলার মতো শক্তি ছিল না বিজেপি (BJP)। কিন্তু ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটে মোদী হাওয়া ঢুকে পড়েছিল দীর্ঘদিনের বাম-বঙ্গে। সে হাওয়া গতি পায়নি ২ বছর পরে ২০১৬ সালের বিধানসভা ভোটে।

সাকুল্যে ৩টি আসন পেয়েছিল বিজেপি। সেই বিজেপিই গত লোকসভা ভোটে বাংলায় পেয়েছে ১৮ আসন। এই বিধানসভা ভোটে তারা প্রবলভাবে ক্ষমতার দাবিদার। নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহ ও জেপি নাড্ডারা প্রায় প্রতিদিন দাপিয়ে বেড়িয়েছেন বাংলার এপ্রান্ত থেকে ওপ্রান্ত। প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন,’এবার আসল পরিবর্তন। ক্ষমতায় আসলে ৫ বছরে সোনার বাংলা গড়ব।’