মঙ্গলবার, ৩রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দুষ্কৃতির বোমায় গুরুতর জখম বিজেপি কর্মী

News Sundarban.com :
জানুয়ারি ২৬, ২০২১
news-image

নিউজ সুন্দরবন ডেস্ক, দুষ্কৃতির ছোড়া বোমায় গুরুতর জখম হলেন এক বিজেপি কর্মী। গুরুতর জখম অবস্থায় বিজেপি কর্মী জয়ন্ত হালদার ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাঁর ডান পা ও কাঁধে বোমার আঘাতে গুরুতর জখম হয়।ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাতে ক্যানিং থানার অন্তর্গত মাতলা ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের খাসকুমড়ো খালির থুমকাঠি এলাকায়।

স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে এদিন রাত প্রায় আট নাগাদ দুই বন্ধুকে নিয়ে থুমকাঠি থেকে বাইক চালিয়ে তালদি তে যাচ্ছিলেন বিজেপি কর্মী সমর্থক জয়ন্ত হালদার।অভিযোগ রাতের অন্ধকারে বাইক লক্ষ্য করে তৃণমূল আশ্রিত জনাদশেক দুষ্কৃতি বোমাবাজী করে। বোমার আঘাতে বাইক থেকে ছিটকে পড়ে যায় ওই বিজেপি কর্মী। অপর দুই বন্ধু প্রাণ বাঁচানোর তাগিদে দৌড়ে পালিয়ে গিয়ে অন্যান্য বিজেপি কর্মী সমর্থকদের খবর দেয়। তারাই ঘটনাস্থলে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে ওই বিজেপি কর্মী কে।তারা তড়িঘড়ি চিকিৎসার জন্য ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায় চিকিৎসার জন্য।বর্তমানে সেখানে আশাঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন ওই বিজেপি কর্মী সমর্থক।

ঘটনার বিষয়ে স্থানীয় ক্যানিং ১ মন্ডল বিজেপির সাধারণ সম্পাদক পবিত্র পাত্র জানিয়েছেন “শাসক দলের পায়ের তলায় মাটি নেই। তাই তারা মরিয়া হয়ে বাছাই করে বিজেপি কর্মী সমর্থকদের উপর আক্রমণ চালিয়ে যাচ্ছে ক্রমাগত। ২০২১ এ বিধানসভা নির্বাচনে বিলীন হয়ে যাবে তৃণমূল। তাই সন্ত্রাসের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করতে চাইছে।”
অন্যদিকে স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব ঘটনায় জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করে জানিয়েছেন “বিজেপি দলের মধ্যে কে নেতা হবে সেই নিয়েই নিজেদের মধ্যে লড়াই হচ্ছে প্রতিনিয়ত। নিজেরাই গন্ডোগোল করে তৃণমূলের নামে দোষারোপ করে রাজনৈতিক ভাবে ফায়দা তুলতে চাইছে।যা সাধারণ মানুষ কখনও মেনে নেবে না”।