বুধবার, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দেশলাই কাঠি দিয়ে দুর্গা প্রতীমা তৈরি করে নজর কাড়ল বাঁকুড়ার বিপ্লব মাঝি

News Sundarban.com :
আগস্ট ২৫, ২০২০
news-image

মৌসুমী চ্যাটার্জী, বাঁকুড়া: 

দেশলাই কাঠি দিয়ে দূর্গা প্রতিমা তৈরি করে নজর কাড়ল ইন্জিনীয়ারিং পড়ুয়া বাঁকুড়ার শালতোড়া ব্লকের বিপ্লব মাজি।

বিশ্ব জোড়া মহামারীর কবলে পড়েছে গোটা দেশ ও রাজ্য। প্রতি মুহূর্তে দুঃসংবাদের মধ্যেও জেলাবাসীর জন্য এক অন্য রকম খুশির খবর এল। এবার দেশলাই কাঠি দিয়ে দেবী দূর্গার সম্পূর্ণ মূর্তি তৈরি করে নজর কাড়ল বাঁকুড়া জেলার শালতোড়া ব্লকের ঢেকিয়া গ্রামের বিপ্লব মাজি।
দেশলাই কাঠি দিয়ে দুর্গা প্রতীমা তৈরি করে নজর কাড়ল বিপ্লব মাঝি।

দীর্ঘ কয়েক মাস ধরে লকডাউন বন্ধ স্কুল কলেজ । বাড়িতে বসে নতুন কিছু করে দেখানোর ভাবনা আসানসোল কলেজের ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র বিপ্লব মাঝির। আর এই ভাবনা থেকেই শুধুমাত্র দেশলাই কাঠি দিয়ে একই পাটাতনে বানিয়ে ফেললেন অসুর বাহিনী দুর্গা,কার্তিক , গণেশ , লক্ষ্মী ও সরস্বতীর মূর্তি ।
কেবল মাত্র ৪০ বাক্স দেশলাই কাঠি দিয়ে বানানো এই দূর্গা চালাটির দৈর্ঘ্য ১০ সেন্টিমিটার ও উচ্চতা ৫.৫ সেন্টিমিটার ।

লকডাউনে মাত্র ৩ মাসের সময়ে তৈরি করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন তিনি। পেশায় ইঞ্জিনিয়ারিং এর তৃতীয় বর্ষের ছাত্র হলেও নেশা সৃজনশীল সৃষ্টিকর্মে। সেই নেশার টানে সবসময় চেষ্টা ছিল এমন কিছু করার। একটু অন্য রকম অর্থাৎ ব‍্যতিক্রমি হবে। যা সবাইকে তাক লাগিয়ে দিতে পারে। প্রাথমিক ভাবে চিত্রকর হওয়ার স্বপ্ন দেখলেও পারিবারিক অস্বচ্ছলতার কারণে তা সফল হয়ে ওঠেনি। তবে মনের মধ্যে আলাদা কিছু করার তাগিদ বাঁচিয়ে রেখেছিলেন তিনি। সে দিক থেকে প্রথম সাফল্য আসে একজন চিত্রশিল্পী হিসাবে।
এখানেই থেমে থাকেননি তিনি। আঁকাআঁকির পারদর্শীতাকে কাজে লাগিয়ে মনের মধ‍্যে একটি সুপ্ত ইচ্ছে ছিল শুধু জেলা নয়, রাজ‍্য বা দেশের মুখ উজ্জ্বল করার মতো কিছু একটা করা। মনে হয় সেই প্রচেষ্টারই সাফল্য এল এবার। নেহাতই খেয়াল বশে বেশ কদিন ধরে প্রায় ৪০ বাক্স দেশলাই কাঠি দিয়ে বানিয়ে ফেললেন ছোট্ট দূর্গার চালা যেটি দূর্গার মূর্তির মতোই হুবহু দেখতে।এবার লক্ষ‍্য জাতীয় রেকর্ড গড়ার। যার প্রস্তুতি ইতিমধ‍্যেই শুরু করে দিয়েছেন তিনি। এখন দেখার তিনি এই দুঃস্থ পরিস্থিতির ভিতর নিজের লক্ষ‍্যে অবিচল থেকে কবে দেশের নাম উজ্জ্বল করতে পারেন। সেদিকেই তাকিয়ে সবাই, তবে বর্তমানে তাঁর এই কৃতিত্বে খুশী এলাকাবাসীরাও।