সোমবার, ১৫ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

কংগ্রেসের অন্তর্বর্তীকালীন সভাপতি হিসেবে থাকছেন সোনিয়া গান্ধীই

News Sundarban.com :
আগস্ট ২৫, ২০২০
news-image

আগামী ছয় মাসের জন্য ভারতের বিরোধী রাজনৈতিক দল কংগ্রেসের অন্তর্বর্তীকালীন সভাপতি হিসেবে সোনিয়া গান্ধীই থাকছেন। এই সময় পর ভোটাভুটির মাধ্যমে নতুন সভাপতি বাছাই করা হবে। সোমবার দলটির ওয়ার্কিং কমিটির সত ঘণ্টার  বৈঠক শেষে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এদিন ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং সোনিয়া গান্ধীকে অন্তর্বর্তীকালীন সভাপতি হিসেবে কার্যভার সামলানোর প্রস্তাব পেশ করেন। কংগ্রেসের অন্তর্বর্তীকালীন সভানেত্রীর পদে তিনি আর থাকতে চান না- রোববার দলকে চিঠি দিয়ে জানিয়ে ছিলেন সোনিয়া। এটি নিয়েই সোমবার দলের কার্যকরী কমিটির জরুরি বৈঠক ডাকা হয়।

সূত্র জানিয়েছে, এর আগে কংগ্রেসের প্রবীণ নেতারা একটি চিঠি দিয়ে দলের জন্য ‘পূর্ণ সময়ের সভাপতি’ নিয়োগের দাবি জানান। এরপর জল্পনা ওঠে, সোনিয়া গান্ধী এখনি পদত্যাগ করবেন নাকি নতুন সভাপতির সন্ধানে দলকে সময়সীমা দেবেন। এরপর, তড়িঘড়ি করে সোমবার এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে ভার্চুয়াল বৈঠকে বসে কংগ্রেসের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারক কমিটি।

এর আগে রাহুল গান্ধী বলেছিলেন, তিনি আর কংগ্রেস সভাপতির পদে ফিরতে চান না। বরং দলের হয়ে কাজ চালিয়ে যাবেন এবং বিজেপি নেতৃত্বাধীন আরএসএসের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক লড়াই করবেন। সূত্র জানিয়েছে, প্রিয়াঙ্কা গান্ধীও পরিষ্কার করে জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি সাধারণ সম্পাদক হিসেবেই থাকবেন, দলের শীর্ষপদের দায়িত্ব নিতে ইচ্ছুক নন। আর সম্প্রতি প্রিয়াঙ্কা ইঙ্গিতও দিয়েছিলেন, গান্ধী পরিবারের বাইরে থেকে কংগ্রেস সভাপতি করার উদ্যোগ নেওয়া যেতে পারে।

এদিকে শনিবার কংগ্রেসের ২৩ জন শীর্ষ নেতা একজন যোগ্য সভাপতি নির্বাচনের জন্য চিঠি লেখেন সোনিয়া গান্ধীকে। সূত্র জানিয়েছে, এরপর নাকি ঘনিষ্ঠমহলে পদত্যাগের ইচ্ছা প্রকাশ করেন সোনিয়া গন্ধী।

চিঠিতে সই করেন- কপিল সিব্বল, শশী থারুর, গুলাম নবী আজাদ, পৃথ্বীরাজ চৌহান, বিবেক তানখা এবং আনন্দ শর্মার মতো প্রবীণ নেতারা। এতে দাবি করা হয়, রাহুল গান্ধী যদি দলের সভাপতি পদ গ্রহণে ইচ্ছুক না হন তবে দলের মধ্য থেকে নির্বাচনের মাধ্যমে উপযুক্ত নেতা বেছে নেওয়া হোক। সংগঠনের শীর্ষনেতৃত্ব থেকে তৃণমূল- সব জায়গায় আমূল সংস্কারেরও দাবি তোলেন তারা।

দলের নেতৃত্বে নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হওয়ায় দলের কর্মীরা দিশাহীন হয়ে পড়ছেন বলে চিঠিতে দাবি করা হয়। দলের সর্বোচ্চ সিদ্ধান্ত গ্রহণের লক্ষ্যে কার্যকরী কমিটির সদস্যদের নিয়ে নির্বাচনেরও আহ্বান জানানো হয় এতে।

চিঠিটি প্রকাশ্যে আসার পর সোনিয়া গান্ধির ঘনিষ্ঠ সূত্র জানায়, তিনি পদত্যাগ করতে প্রস্তুত। গত লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের শোচনীয় পরাজয়ের পরে রাহুল গান্ধী দলের শীর্ষ পদ ছাড়েন, এরপর ৭৩ বছর বয়সী সোনিয়া সাময়িকভাবে দলের হাল ধরেন। কিন্তু নিজের স্বাস্থ্যের অবনতি হওয়ার কারণে কিছুদিন ধরেই তিনি দায়িত্ব ছাড়ার কথা বলছিলেন। -এনডিটিভি