মঙ্গলবার, ৩রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

নিউ গড়িয়া – এয়ারপোর্ট মেট্রো প্রকল্পে কাটল জট

News Sundarban.com :
জুলাই ৪, ২০২০
news-image

 ৫২৭ কোটি টাকা বরাদ্দ করল রেল বোর্ড

বিমানবন্দর মেট্রো প্রকল্প নিয়ে জটিলতার অবসান। নিউ গড়িয়া থেকে এয়ারপোর্টের মধ্যে প্রস্তাবিত মেট্রো করিডোরের জন্য রেলবোর্ড ৫২৭ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে । এটিই এখনও পর্যন্ত শহরের দীর্ঘতম প্রস্তাবিত মেট্রো করিডোর।চলতি মাসের শেষ দিকেই এই প্রকল্প নির্মাণের জন্য টেন্ডার ডাকা হবে। আশা করা যাচ্ছে পুজোর পরেই এই প্রকল্প নির্মাণে জোর দেবে নতুন নির্মাণকারী সংস্থা। এই প্রকল্প শেষ হলে দক্ষিন ও পূর্ব কলকাতার মানুষজন দ্রুত যেমন সেক্টর ফাইভে পৌঁছাতে পারবেম তেমনি বিমানবন্দরেও তাঁরা দ্রুত চলে যেতে পারবেন। একই সঙ্গে এই প্রকল্প পূর্ণদমে চালু হয়ে গেলে ই এম বাইপাস সংলগ্ন এলাকাই কলকাতার নতুন প্রাণকেন্দ্র হয়ে উঠবে।

রেল সূত্রে জানা গেছে , সিটি সেন্টার ২ থেকে এয়ারপোর্ট পর্যন্ত ৩.৬ কিলোমিটার দীর্ঘ প্রস্তাবিত মেট্রো পথের জন্য এই ৫২৭ কোটি টাকা অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। ভিআইপি রোডের পাশ দিয়ে এয়ারপোর্ট অথরিটির জমিতে ফ্লাইওভার তৈরি করে মেট্রোর লাইন পাতা হবে। যদিও প্রস্তাবিত এয়ারপোর্ট স্টেশনটি মাটির নীচে তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে। আগামী ৩০ জুলাই এই মেট্রোপথের কাজের জন্য টেন্ডার ডাকা হবে।
উল্লেখ্য ফ্লাইওভার তৈরির জন্য জমির সমস্যার কারণে এই মেট্রো করিডোর নির্মাণের কাজ ব্যাহত হয়। রাজ্য সরকারের অনুরোধে কলকাতা বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ ভিআইপি রোডের ধারে তাদের জমির বাইরের দিকের কিছুটা অংশ ফ্লাইওভার নির্মাণের জন্য দিতে সম্মত হলেও প্রকল্পের খরচ বেড়ে যাওয়ায় নতুন করে সমস্যা তৈরি হয়। কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রকের সঙ্গে আলোচনার পর এই প্রস্তাবিত মেট্রো পথের জন্য ৫২৭ কোটি টাকা দেওয়ার ব্যাপারে রেলবোর্ড সম্মতি দেওয়ায় আপাতত সিটি সেন্টার ২ থেকে এয়ারপোর্ট পর্যন্ত মেট্রোর প্রকল্পে আর কোনও বড় বাধা রইল না বলে মনে করা হচ্ছে। নিউ গড়িয়া থেকে এয়ারপোর্ট অবধি মেট্রো রেল প্রকল্প গড়ে তোলার কথা রেলমন্ত্রী থাকার সময়ে ঘোষণা করেছিলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু সেই প্রকল্পের কাজ শুরু হলেও তা নির্দিষ্ট সময়ে শেষ করতে নানা বাধার মুখে পড়তে হয়। কখনও মামলা, কখনও জমির অভাব আবার কখনও বা প্রযুক্তিগত সমস্যা। সেই সব সমস্যা কাটিয়ে কাজ এগোনোর মুখে আসতেই পূর্ববর্তী টেন্ডারের চুক্তির সময়সীমা পেরিয়ে যায়। অগ্যতা নতুন করে টেন্ডার ডাকার প্রয়োজন হয়ে পড়ে। এবার সেই টেন্ডার ডাকার আগেই প্রকল্পের বাদবাকি কাজ যাতে হয় তার জন্য কেন্দ্রের তরফে বরাদ্দ মঞ্জুর করল।

জানা গিয়েছে, কেন্দ্র এখন যে ৫২৭ কোটি টাকা বরাদ্দ মঞ্জুর করেছে তাতে এই মেট্রো করিডোরের সিটি সেন্টার ২ থেকে এয়ারপোর্ট পর্যন্ত ৩.৬ কিলোমিটার দীর্ঘ প্রস্তাবিত মেট্রো পথের জন্য ভায়াডাক্ট, র‍্যাম্প, আন্ডারগ্রাউন্ড আরসিসি বক্স, এয়ারপোর্টে রেলওয়ে ইয়ার্ড এবং এয়ারপোর্ট-সহ রবিতীর্থ ও ভিআইপি রোড এই দুটি স্টেশন তৈরি করা হবে। এর পাশাপাশি ২৪৭ কোটি টাকায় রেল বিকাশ নিগম আরও একটি প্রকল্প শুরু করছে। তাতে এই মেট্রো প্রকল্পের এই করিডরে নিউটাউন থেকে সিটি সেন্টার ২ পর্যন্ত সাতটি স্টেশন তৈরি করা হবে। কার্যত এই দুই পদক্ষেপের দরুন টাকার সমস্যা আপাতত মিটে গেল নিউ গড়িয়া এয়ারপোর্ট রুটের মেট্রো প্রকল্পের জন্য। আর আতেই মনে করা হচ্ছ এই প্রকল্প আবারও প্রাণ ফিরে পেল। এই প্রকল্পটি নির্মিত হলে এটিই হবে কলকাতা তথা পূর্ব ভারতের মধ্যে সব থেকে দীর্ঘতম মেট্রো করিডোর।