সোমবার, ২৩শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

যুব-তৃণমূল করার অপরাধে বেধড়ক মারধোর

News Sundarban.com :
জুলাই ২, ২০২০
news-image

বিশ্লেষন মজুমদার,  ক্যানিং

– যুবতৃণমূল কংগ্রেস করার অপরাধে এক কর্মীকে ডেকে এনে বেধড়ক মারধোর করার অভিযোগ উঠলো শাসক দলের মাদার তৃণমূল গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে।আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাসন্তী ব্লকে শাসক দলের গোষ্ঠি কোন্দল আবারও প্রকাশ্যে চলে এলো। ঘটনায় গুরুতর জখম অবস্থায় ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রাজ্জাক পিয়াদা নামে এই যুবতৃণমূল কর্মী।এলাকায় রয়েছে চরম উত্তেজনা। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সকালে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার বাসন্তী ব্লকের কাঁঠালবেড়িয়া গ্রামপঞ্চায়েতের খেড়িয়া এলাকার বিহারীমোড়ে।স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে এদিন সকালে বিহারী মোড় সংলগ্ন সরদার পাড়ার বাড়িতেই বসেছিলেন যুবতৃণমূল কংগ্রেসের সক্রিয় কর্মী রাজ্জাক পিয়াদা।সেই সময় এই যুবকর্মীকে বাড়ির বাইরে ডেকে আনেন মাদার তৃণমূল কংগ্রেসে বাকিবুল্লা সরদার ওরফে হাবি,বেণু সরদার ,ইউসুব সরদার সহ অন্যান্যরা। অভিযোগ বাড়ির বাইরে এই যুবকর্মী রাজ্জাক পা রাখতেই লাঠি,লোহার রড নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে মাটিতে ফেলে বেধড়ক মারধোর করে মাদার তৃণমূল গোষ্ঠির বাকিবুল্লা সরদার ওরফে হাবি,বেণু সরদার ,ইউসুব সরদাররা।মারধোর করার ঘটনা জানতে পেরে ঘটনাস্থলে এলাকার যুবতৃণমৃল কর্মীরা হাজীর হলে দুষ্কৃতিরা পালিয়ে যায়।গুরুতর আশাঙ্কাজন অবস্থায় যুবতৃণমূল কর্মী রাজ্জাক কে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়।বর্তমানে সেখানে আশাঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন এই যুবকর্মী।
ঘটনার বিষয়ে বাসন্তী ব্লক যুবতৃণমূল কংগ্রেস সংগঠনের নেতা আমান লস্কর বলেন “এলাকা থেকে যুবতৃণমূল কংগ্রেস কে উৎখাত করার জন্য চক্রান্ত করে আমাদের যুবকদের উপর আক্রমণ চালাচ্ছে মাদার গোষ্ঠীর দুষ্কৃতিরা।দুষ্কৃতিরা অধিকাংশ সময়ে তোলাবাজি এবং নারীপাচারের সাথে জড়িত। স্থানীয় থানায় এবং ক্যানিং মহিলা থানায় ঘটনায় জড়িত দুষ্কৃতিদের নামে নারীপাচারের মতো ঘটনার একাধিক অভিযোগ রয়েছে।তবে দুষ্কৃতি দিয়ে যতই আক্রমণ হানা হোক না কেন যুবতৃণমূল কংগ্রেস বাসন্তীর বুকে আরো মজবুত শক্তিশালী সংগঠন তৈরীতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে। ”
অন্যদিকে বাসন্তী ব্লক মাদার তৃণমূল সংগঠনের নেতা মন্টু গাজী বলেন “ঘটনাটি সম্পূর্ণ পারিবারিক গন্ডগোল। এর সঙ্গে তৃণমূল কেন,কোন প্রকার রাজনৈতিক সম্পর্ক নেই।এলাকার কিছু দুষ্কৃতি রাজনৈতিক ফায়দা তোলার জন্য পারিবারিক ঘটনাকে রাজনীতির আঙিনায় নিয়ে এসে চক্রান্ত করে তৃণমূল কংগ্রেস কে কালিমালীপ্ত করতে চাইছে।”
যদিও এবিষয়ে বাসন্তী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বাসন্তী থানার পুলিশ।