মঙ্গলবার, ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

লকডাউনে ত্রাতার ভূমিকায় পরিচারিকাদের পাশে বারুইপুর পুলিশ জেলার পুলিশ

News Sundarban.com :
এপ্রিল ৩০, ২০২০
news-image

বিশ্লেষণ মজুমদার, ক্যানিং –

চলছে লকডাউন। কাজকর্ম নেই। নেই কোন উপার্জনও। জমানো খাবার সামগ্রী কিংবা টাকা পয়সা শেষাগত । অগত্যা নিরুপায় দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ক্যানিং,কুলতলি,জয়নগর ব্লকের কর্মজীবী পরিচারিকা মায়েরা গৃহবন্দি হয়ে রয়েছেন।যাদের উপার্জনে পরিবারের সদস্যদের দুবেলা দুমুঠো অন্ন সংস্থান হতো লকডাউনে তারা ঘরে বসে থাকায় অসহায় ভাবে দিন কাটছে তাদের অসহায় দরিদ্র পরিবার গুলির।এমন সংকটময় পরিস্থিতিতে সাময়িক ভাবে সামাল দেওয়ার জন্য ত্রাতার ভূমিকায় অবতীর্ণ হল বারুইপুর পুলিশ জেলার পুলিশ।দুঃস্থ পরিবার গুলি ও তাদের ক্ষুধার্ত শিশুদের জন্য জেলাপুলিশের পুলিশ সুপার রশিদ মুনির খানের উদ্যোগে পরিচারিকা মায়েদের পরিবার গুলির হাতে তুলে দেওয়া হয় চাল,ডাল,আলু ও বিস্কুট।এদিন ক্যানিংয়ের শরৎপল্লি, দিঘীরপাড়, উত্তরঅঙ্গদ বেড়িয়া, দুমকি, জয়রামখালি ও ডাবু এলাকার ১২৫ জন,জয়নগরের ১১৪ জন ও কুলতলি ব্লকের ৭০টির অধিক দুঃস্থ পরিচারিকা মায়েদের হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দেওয়া হয়। বিভিন্ন এলাকায় খাদ্যসামগ্রী তুলে দেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন বারুইপুর মহিলা থানার আইসি কাকলি ঘোষ কুন্ডু,জয়নগর থানার আইসি অতনু সাঁতরা,ক্যানিং থানার আইসি অমিত কুমার হাতি,ক্যানিং মহিলা থানার এসআই তনুশ্রী মন্ডল,এলসি সুজাতা নায়েক সহ অন্যান্য পুলিশ কর্মীরা। পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে অসময়ে এমন পর্যাপ্ত পরিমান ত্রাণ পেয়ে খুশি দরিদ্র দুঃস্থ পরিবার গুলি।