বুধবার, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে করোনায় দরিদ্রদের ত্রাণ দিলো জেলা বিজেপি কার্যকর্তা

News Sundarban.com :
মার্চ ২৯, ২০২০
news-image

ক্যানিং -গত বৃহষ্পতিবার দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জগৎ প্রকাশ নাড্ডা প্রতিটি বিজেপি কার্যকর্তা কে নির্দেশ দিয়েছিলেন যে যার এলাকায় অন্তত্য পাঁচজন দরিদ্র অসহায় পরিবারের হাতে সাহায্য তুলে দেওয়ার জন্য।কারণ এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাসে জর্জরিত দেশ তথা রাজ্য। সেই করুণ পরিস্থিতিতে অসহায় দরিদ্র মানুষজন যাতে করে বিপদের সম্মূখিন না হয় তার জন্য এই আবেদন করেছিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা।

অনদিকে করোনা ভাইরাস আতঙ্কে জর্জরিত ক্যানিংয়ের বহু দরিদ্র পরিবার।দিন আনা দিন খাওয়া হতদরিদ্র মানুষজন করোনা ভাইরাসে আতঙ্কিত হয়ে আজ ঘরের মধ্যে আবদ্ধ।সেই করুণ পরিস্থিতিতে অনেক অসহায় মানুষজনের বাড়ীতে উনুনে হাঁড়ী পর্যন্ত চড়েনি।আর এমন করুন পরিস্থিতিতে জে পি নাড্ডা ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আবেদনে সাড়া দিয়ে শনিবার দুপুরে ক্যানিং এলাকার ২০ টি দরিদ্র পরিবারে বাড়ীতে গিয়ে তাদের হাতে ৩ কেজি চাল,আলু ২ কেজি,৫০০ গ্রাম করে পিঁয়াজ তুলেদেন দক্ষিণ ২৪ পরগনা পূর্বজেলার জেলা সম্পাদক সঞ্জয় নায়েক।
পূর্বজেলার সম্পাদকের এমন কার্যক্রমে এদিন সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনা পূর্ব জেলার যুবনেতা অসিত মন্ডল,ক্যানিং ১ মন্ডলের সাধারণ সম্পাদক রমেন মন্ডল,সহ সভাপতি পার্থপ্রতিম চক্রবর্তী,শুভদীপ দাস,পলাশ সিং,রাধেশ্যাম সিং,অমৃত নস্কর সহ অন্যান্যরা। এমন কর্মকান্ডের শেষে বিজেপি নেতৃত্বরা জানিয়েছেন আগামী দিনে আমরা আরো প্রচুর অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেবো।
অন্যদিকে এলাকায় বিভিন্ন বাড়ীতে পরিচারিকার কাজ করতে যেতেন ক্যানিংয়ের দিঘীরপাড় গ্রামপঞ্চায়েতের উত্তর কোড়াকাঠী গ্রামের কাজল শীল।তিনি করোনার জেরে কাজে যেতে না পারায় তিনচার দিন শুধুমাত্র শাক সিদ্ধ করে খেয়ে বেঁচে রয়েছেন অর্ধাহারে। এদিন দুপুরে তিনি বিজেপির জেলা সম্পাদকের কাছ থেকে চাল আলু পেয়ে খুব খুশি। যদিও পরোক্ষণে কাজল দেবী বলেন দুদিন হয়তো খেয়ে বাঁচবো!কিন্তু পরে আর কি কেউ এমন সাহায্য করবে?