বুধবার, ৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

মেগা ডার্বির আগে চাপের বাষ্প ঘনীভূত হচ্ছে ইস্টবেঙ্গল ড্রেসিংরুমে

News Sundarban.com :
জানুয়ারি ১৯, ২০২০
news-image

রবিবাসরীয় মেগা ডার্বির আগে চাপের বাষ্প ঘনীভূত হচ্ছে ইস্টবেঙ্গল ড্রেসিংরুমে। টানা দু ম্যাচে হার, চোট-আঘাত, বোরহার না থাকা, ক্লাব-ইনভেস্টর দূরত্ব। নতুন বছরের শুরুতে কেমন যেন অগোছাল ইস্টবেঙ্গল। গোকুলাম ম্যাচ হারের পর গো ব্যাক স্লোগানও শুনতে হয়েছে কোচ আলেসান্দ্রোকে। বড় ম্যাচের আগে লাল-হলুদের অনুশীলনও দেখতে আসেননি সমর্থকেরা। একটা ডার্বি জয়ই পারে সমস্ত গ্লানি মুছে দিতে। শতবর্ষের বছরে মর্যাদার ডার্বি জিতেই আই লিগে ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া কোলাডোরা। আলেসান্দ্রো ভাঙবেন তবু মচকাবেন না। ডার্বির আগে দলের মনোবল তলানিতে থাকলেও তা স্বীকার করতে নারাজ ইস্টবেঙ্গলের স্প্যানিশ কোচ। মার্কোস, ক্রেস্পিদের পারফরম্যান্স গ্রাফ একেবারে নীচে। ডিকাদের নিয়ে আত্মবিশ্বাসের সুর শোনালেও মোহনবাগানের আক্রমণকেই সমীহ করছেন আলেসান্দ্রো।

বেইটিয়া, গঞ্জালেসদের আটকাতে রক্ষণে বিশেষ নজর দিচ্ছেন লাল-হলুদ কোচ। বড় ম্যাচের আগে ভিডিও অ্যানালিসিস ক্লাসে ক্রেস্পিদের গলদ দেখিয়ে দেন আলেসান্দ্রো। বাবা দিওয়ারাদের সামলাতে রক্ষণে ক্রেস্পির সঙ্গী হচ্ছেন মেহতাব সিং। বাকি দল হয়তো অপরিবর্তিত থাকছে।  মার্কোস-কোলাডোরা গোল পাচ্ছেন না। বাগানের রক্ষণ ভাঙতে আলেসান্দ্রোর অস্ত্র তাই সেট পিস। ডেড বলে সাইরাস-মোরান্তেদের দুর্বলতা নোটবুকে তুলে রেখেছেন স্প্যানিশ কোচ। বড় ম্যাচের চব্বিশ ঘন্টা আগে কাসিমদের তাতিয়ে গেলেন শীর্ষকর্তা দেবব্রত সরকার। মশালে বারুদ জমানোর কাজটা করে গেলেন লাল-হলুদের ক্যাপ্টেন।