শুক্রবার, ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

উধাও আরাবল্লীর ৩১টি ছোট ছোট পাহাড়

News Sundarban.com :
অক্টোবর ২৫, ২০১৮
news-image

রাজস্থানের আরাবল্লীর ৩১টি ছোট ছোট পাহাড় আর নেই! বিভিন্ন পাহাড়ি এলাকায় অবৈধ নির্মাণের ফলে বন্যার আশঙ্কা বাড়ছে। পাশাপাশি খনি মাফিয়াদের দৌরাত্মে অন্যান্য রাজ্যও বিপন্ন। এনিয়ে কড়া পদক্ষেপ নিল সুপ্রিম কোর্ট। শীর্ষ আদালত ‘সেন্ট্রাল এমপাওয়ারড কমিটি’ (সিইসি)-র একটি রিপোর্ট অনুসারে জানিয়েছে, ‘ফরেস্ট সার্ভে অব ইন্ডিয়া’ (এফএসআই)-র সংগৃহীত ১২৮টি নমুনার থেকে স্পষ্ট, উধাও হয়ে গিয়েছে এই ৩১টি পাহাড় । সুপ্রিম কোর্টের বক্তব্য, বেআইনি খননের জেরেই এহেন কাণ্ড ঘটেছে! রাজ্য সরকারকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে আরাবল্লীর ১১৫.৩৪ হেক্টর এলাকায় বেআইনি খনন বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে শীর্ষ আদালত।
বিচারপতি মদন বি লোকুর এবং বিচারপতি দীপক গুপ্তের বেঞ্চ জানিয়েছে, আরাবল্লীতে খনন কাজ থেকে রাজস্থান সরকার ৫০০০ কোটি টাকা রয়্যালটি পায়। কিন্তু দিল্লির লাখো বাসিন্দার জীবন বিপন্ন করে এই কাজ চালিয়ে যেতে পারে না রাজস্থান। আদালতের আশঙ্কা, এ ভাবে একের পর এক পাহাড় নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়াই দিল্লি-দূষণের অন্যতম কারণ। শুনানি চলাকালীন আদালত জানতে চেয়েছিল, বেআইনি খনন আটকাতে রাজ্য সরকার কী কী উদ্যোগ নিয়েছে? সরকারি আইনজীবী জানান, শো-কজ নোটিস দেওয়া হয়েছে। দায়ের করা হয়েছে এফআইআরও। এরপরই বিচারপতি লোকুর ও বিচারপতি গুপ্তের বেঞ্চ বলেন, ‘‘ পাহাড় বাঁধের কাজ করে। এ ভাবে পাহাড় উধাও হয়ে গেলে, রাজধানীর নিকটবর্তী এলাকা থেকে দূষণ ক্রমশ গ্রাস করবে দিল্লিকে। নিজের রাজ্যের কিছু খনি মালিকের স্বার্থ রাখতে, আপনারা দিল্লির লক্ষ লক্ষ মানুষের জীবন বিপন্ন করছেন।’’ আদালত এ-ও সতর্ক করেছে, ‘‘খনন কাজ থেকে হয়তো রাজস্থান সরকার ৫ হাজার কোটি টাকা রয়্যালটি পায়। কিন্তু দিল্লির মানুষের স্বাস্থ্য খাতে তার দশ গুণ খরচ হয়ে যাচ্ছে।’’