বুধবার, ২৫শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

তৃণমূলে যোগদান নিয়ে মুকুল যা বলেন

News Sundarban.com :
সেপ্টেম্বর ১, ২০১৮
news-image

মুকুল-পুত্রের অসুস্থতার খবর শুনে হাসপাতালে তাঁকে দেখতে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তাতেই জল্পনার পারদ চড়তে থাকে। খবর রটে যায়, হাসপাতালে শুভ্রাংশুকে দেখতে যাওয়া মমতা-মুকুলকে ফের রাজনৈতিকভাবে কাছাকাছি এনেছে। সেই সূত্র ধরেই বিজেপি নেতা মুকুল রায় ফের পুরনো দলে ফিরতে পারেন। আর তা যদি হয়, সেটা হবে লোকসভা ভোটের আগে বিজেপির কাছে বিরাট ধাক্কা। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে এই খবর প্রকাশ হতেই বিজেপি তীব্র প্রতিবাদ জানায়। কিন্তু কী বলছেন মুকুল রায়? তা জানার আগ্রহও ছিল তীব্র! মুকুল রায় এরপরই টুইট করে জানান, এই খবর সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও মিথ্যা। আর সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া মুখোমুখি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, তৃণমূলে যাওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই।

তিনি দ্ব্যর্থহীন ভাষায় বলেন, আমার ভাবমূর্তি কলুষিত করতেই এই খবর প্রকাশ করা হয়েছে। সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন খবর। আমার সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর দেখাও হয়নি। এটা আমার বিরুদ্ধে চক্রান্ত করা হচ্ছে। বিজেপি কর্মীদের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতেই এসব করা হচ্ছে পরিকল্পনা করে। তিনি আরও স্পষ্ট করে বলেন, তৃণমূলকে বাংলা থেকে উৎখাত করার লক্ষ্য নিয়েই ওই দল ছেড়েছি। তাহলে আর ফিরে যাওয়ার প্রশ্ন উঠছে কেন? আর কেনইবা আমি তৃণমূলে ফিরব, আমি আমার লক্ষ্যে অবিচল। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনেই দেখতে পাবেন তৃণমূলের কী হাল হয়। উল্লেখ্য, মুকুল রায় তৃণমূল শিবির ত্যাগ করে গেরুয়া শিবিরে ভিড়লেও, মুকুল-পুত্র শুভ্রাংশু তৃণমূলেই রয়ে গিয়েছেন। তিনি বারবার জানিয়েছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আদর্শ মেনেই তিনি রাজনীতিকে এসেছেন। তিনি তৃণমূলে ছিলেন, তৃণমূলেই থাকবেন। সেইমতো দলের বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়ের অসুস্থতার খবর শুনে হাসপাতালে দেখতে যান মমতা। তাতেই মুকুল-মমতার সাক্ষাৎ নিয়ে জল্পনা শুরু হয়।