বুধবার, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

কন্যাশ্রী প্রকল্পের জন্য এগিয়ে গিয়েছে সংখ্যালঘু ছাত্রীরা

News Sundarban.com :
এপ্রিল ৪, ২০১৮
news-image

আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেয়েছে কন্যাশ্রী প্রকল্প। মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প কন্যাশ্রী । কন্যাশ্রী প্রকল্পের সাফল্যের জন্য মাধ্যমিকের থেকে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষায় এগিয়ে গিয়েছে সংখ্যালঘু ছাত্রীরা । একাদশ-দ্বাদশ ২০১৫-২০১৬ শিক্ষাবর্ষে সংখ্যালঘু ছাত্রীদের সংখ্যা ছিল ২,০৫,১৩৩ জন । ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষে সংখ্যালঘু ছাত্রীদের সংখ্যা ২,২০,৯৫৭ জন। কন্যাশ্রী প্রকল্পের জন্য এই সাফল্য। ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রীদের সার্বিক নথিভুক্তির হারও যথেষ্ট বেশি।
কিন্তু প্রাক-প্রাথমিক থেকে মাধ্যমিক পর্যন্ত বিভিন্ন স্তরে ছাত্রীদের নথিভুক্তি কোনও ক্ষেত্রে এক লক্ষ থেকে ১০ হাজার পর্যন্ত কমেছে। যদিও, এর কোনও কারণ দেখছে না ওয়াকিবহাল মহল। সংখ্যালঘুদের জন্য ঢালাও স্কলারশিপের ব্যবস্থা করা হয়েছে দপ্তরের তরফে। পড়াশুনায় পিছিয়ে পড়া ছাত্রছাত্রীরা যাতে শিক্ষার মূলস্রোত থেকে হারিয়ে না যায়, তাই তাদের জন্য বিশেষ স্কলারশিপের ব্যবস্থা করেছিল সংখ্যালঘু উন্নয়ন দপ্তর। এই স্কলারশিপ পাওয়ার ক্ষেত্রে যোগ্যতা হিসেবে বলা হয়েছিল, ৫০ শতাংশের নীচে নম্বর পাওয়া ছাত্রছাত্রীরাই এটা পাবেন। এ ছাড়াও মেধার ভিত্তিতে সাধারণ স্কলারশিপ তো রয়েছেই। তা সত্ত্বেও এই নিম্নগতিতে বেশ উদ্বিগ্নই বিকাশ ভবনের কর্তারা।
তবে, অনেকেই মনে করছেন, ছাত্রদের পিছনের সারিতে ঠেলে মেয়েরা যেভাবে স্কুলশিক্ষায় এগিয়ে আসছে, সেটা খুবই ইতিবাচক। জাত-ধর্ম নির্বিশেষে সার্বিকভাবে এই ছবিটা বেশ কয়েক বছর ধরেই লক্ষ্য করা যাচ্ছে। কিন্তু সংখ্যালঘুদের ক্ষেত্রে এবার সেটা বেশি স্পষ্ট। শিক্ষাবিদরা মনে করছেন সামাজিক গোঁড়ামির ফাঁস আলগা হচ্ছে বলে।