মঙ্গলবার, ৩রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সাবেক প্রধানমন্ত্রীর মুক্তির দাবিতে কারাগারের সামনে মোনাজাত

News Sundarban.com :
ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৮
news-image

এম এ আহাদ শাহীন:

বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন ও মুক্তির দাবিতে কারাগারের সামনেই দোয়া ও মোনাজাত করেছে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল।
শুক্রবার বিকেলে ৩টায় রাজধানীর নাজিমুদ্দিন রোডের পুরোনো কারাগারের সামনে দোয়া ও মোনাজাতের আয়োজন করে মহিলা দলের নেতাকর্মীরা।
এ সময় মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়াকে গণতান্ত্রিক অধিকার থেকে বঞ্চিত করে তাঁকে একটি নির্জন কারাগারে রাখা হয়েছে। তিনি আসলে ভেতরে কেমন আছেন আমরা জানি না। তিনবারের প্রধানমন্ত্রীকে কারাগারের প্রথম চারদিন ডিভিশন সুবিধাটাও দেওয়া হয় নি।’
সুলতানা আহমেদ আরো বলেন,‘আমরা এসেছি আল্লাহর কাছে দোয়া চাইতে। যেন তিনি আগামী রোববারেই জামিন পেয়ে আবার আমাদের কাছে ফিরে আসেন।’
কারাগারের ভেতরে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে সুলতানা আহমেদ বলেন, ‘আমরা জানি আমাদের ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হবে না। তাই আমরা অনুমতিও চাই নি।’
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন মহিলা দলের যুগ্ম সম্পাদক হেলেন জেরিন খান,সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান নুরজাহান ইয়াসমিন, ইয়াসমিন আরা হক, শাহেনা রহমান, ঢাকা মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদিকা সামসুর নাহার,বিএনপির মহিলা বিষয়ক সম্পাদক নুরে আরা সাফা, নাজমা পারভিনসহ মহিলা দলের আরো অনেক নেত্রী উপস্থিত ছিলেন।
জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে ৫ বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ ছাড়া বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ বাকি আসামিদের ১০ বছর করে কারাদণ্ড ও দুই কোটি ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
পুরান ঢাকার বকশীবাজারে স্থাপিত বিশেষ আদালতের বিচারক ড. আখতারুজ্জামান এ রায় দেন।
মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে খালেদা জিয়া, তারেক রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।
Attachments area