শুক্রবার, ১৯শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

পুলিশি জেরার মুখে AMRI হাসপাতালের ইউনিট হেড জয়তী সেনগুপ্ত

News Sundarban.com :
জানুয়ারি ২১, ২০১৮
news-image

ঐত্রেয়ী দে মৃত্যুর ঘট্নায়, এবার তদন্তে পুলিশি জেরার মুখে পড়তে চলেছেন ওই হাসপাতালের ইউনিট হেড জয়তী সেনগুপ্ত৷ সূত্রের খবর, তাঁকে এদিন পূর্ব যাদবপুর থানা থেকে ডেকে পাঠানো হয়৷ এদিন জয়তীর সঙ্গে থানায় যান আমরির অন্যতম ডিরেক্টর অনিল কুমার মালাবত৷
গত বুধবার ওই হাসপাতালে এক শিশুর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা চরমে৷ ওই শিশুর মৃত্যুর জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের গাফিলতিই দায়ী বলে অভিযোগ পরিবারের৷ এ নিয়ে ঘটনার দিনই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে একপ্রস্থ বচসা হয় পরিবারের সদস্যদের৷ সেই সময় হাসপাতালের ইউনিট হেড জয়ন্তী চট্টোপাধ্যায়ের ব্যবহার নিয়েও বিতর্ক হয়৷ সন্তানহারা মায়ের সঙ্গে তিনি কীভাবে দুর্ব্যবহার করলেন, তা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে৷ ইতিমধ্যে পুলিশের দ্বারস্থ হন মৃত শিশুর পরিবার৷ মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গেও দেখা করেন তাঁরা৷ অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে আমরণ অনশনের হুঁশিয়ারিও দেন৷ এই পরিস্থিতিতে ইউনিট হেড স্বঘোষিত ‘বড় মস্তান’ জয়ন্তী চট্টোপাধ্যায়কে সাসপেন্ডও করা হয়৷ হাসপাতালের তরফে দায়ের করা এফআইআর প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়৷শিশুমৃত্যুর ঘটনায় ১০ দিনের মধ্যে তদন্ত শেষ করবে বলে মুকুন্দপুরের বেসরকারি এক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আশ্বাসও দেয়৷ এদিন পুলিশি তদন্তের মুখে পড়তে হচ্ছে চিকিৎসককে৷ ফলে তিনি কী বলেন, তার উপর তদন্তের গতিপ্রকৃতি অনেকটাই নির্ভর করছে ।