মঙ্গলবার, ৯ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

‘coolest january’পাঁচ বছরের রেকর্ড ভাঙল শীত

News Sundarban.com :
জানুয়ারি ৭, ২০১৮
news-image

গত পাঁচ বছরের রেকর্ড ভাঙল জানুয়ারি শীত, নতুন বছরে শহর কলকাতা জাকিয়ে ব্সেছে শীত। দেখা যাচ্ছে নতুন বছর শুরুতে এটাই সবথেকে ‘coolest january’। হাওয়া অফিসের রেকর্ড সেরকম কথাই বলছে। শীত কেন থিতু হচ্ছে না এ নিয়ে হাজারো প্রশ্ন উঠছিল। উত্তুরে ঠাণ্ডা হাওয়ার পথে এসেও বাধ সাধছিল কখনও পশ্চিমী ঝঞ্ঝা তো কখনও এসে দাঁড়াচ্ছিল ঘূর্ণাবর্ত। সমস্ত বাধা সরে গিয়ে জোড় ঠাণ্ডা পড়েছে নতুন বছরের শুরু থেকেই।
জোড় ঠাণ্ডায় কাবু রাজ্যের সমস্ত জেলা। উত্তর থেকে দক্ষিণ বেশীরভাগ জেলার তাপমাত্রার পারদ দশের নীচে। কোনও কোনও স্থানে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা পাঁচেও ঠেকেছে। আর পাহাড়ের তাপমাত্রা ০ ছাড়া কথা বলছে না।
বরফ না পেলেও স্বাভাবিক নিয়ম মেনে জোড় ঠাণ্ডা রয়েছে দার্জিলিং, কার্শিয়ং , কামিম্পংয়ের মতো পাহাড়ি জেলাগুলিতে। কিন্তু কলকাতার মানুষের শীত নিয়ে চিন্তা থাকে সবথেকে বেশী। প্রশ্ন একটাই থাকে। যে রেটে কলকারখানার বাড়ছে তাতে ঠাণ্ডা পড়বে তো? গত পাঁচ বছরের রেকর্ড সেই প্রশ্নকে আরও জোরালো করেছে।
কিন্তু এই বছর বলতে গেলে শীত ঢেলে দিচ্ছে কলকাতাকে। নভেম্বর থেকেই সেই পালা শুরু হয়েছে। হয়তো কয়েকবার বাধা এসেছে কিন্তু ঠাণ্ডার ফিরে এসেছে বারবার। এই বাধা নিয়েই ফের অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছিল কলকাতাবাসী। ঘর পড়া গরু সিঁদুরে মেঘ দেখলে যা হয় আর কি। কিন্তু সব চিন্তা ঘুচে গেল নতুন বছর পড়তেই। পয়লা থেকেই নামতে শুরু করল তাপমাত্রা। তারপর থেকে টানা পারার পতন এবং সপ্তাহ শেষে দেখা যাচ্ছে শহরের তাপমাত্রা গিয়ে ঠেকল ১০-এ। যা বিগত পাঁচ বছরের প্রথম সপ্তাহে হয়নি। তাপমাত্রা ঘোরাফেরা করেছে ১৫-এর আশেপাশে। সবচেয়ে বেশী কমে এসেছিল ১২.৩ ডিগ্রিতে। সেটা ছিল ২০১৪-র ৪ জানুয়ারি। সবচেয়ে বেশী ছিল ২০১৫-র জানুয়ারির ৩ তারিখ। সেদিন তাপমাত্রা গিয়ে থেকেছিল ২১.২ ডিগ্রিতে। বাকি মোটামুটি কখনও ১৫.১ কখনও ১৬.১ তো কখনও ১৭.৩। গড় তাপমাত্রা ১৫-এর আশেপাশেই।
আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস ছিল ২০১৬-২০১৭ মরসুমের চেয়ে ২০১৭-২০১৮ শীতের মরসুম বেশী ঠাণ্ডা হবে। কিন্তু সেটা যে পাঁচ বছরের প্রথম সপ্তাহের রেকর্ড ব্রেক করে দেবে তা বোঝা যায়নি। সেটাই করে দেখিয়েছে নতুন বছরের ‘নতুন’ শীত। পয়লায় ১৪.৪, দোসরা ১৪.৩। তারপর যথাক্রমে ১৩.৭, ১২.৬,১১.১,১১.৭ পেরিয়ে রবিবার সাট তারিখ জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহের শেষ দিনে আরও এক ডিগ্রি নেমে তাপমাত্রা দাঁড়াল ১০.৬ ডিগ্রিতে। তুলনামূলক ফাঁকা অঞ্চলে ৯-এ নেমে গেল তাপমাত্রা।
পার্বণেও এই ঠাণ্ডার ব্যাটিং বজায় থাকবে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। এবার গোটা মাস যদি এমন চলে তাহলে শুধু এক সপ্তাহের জন্য নয় পাকাপাকি ‘coolest january’ তকমা পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। লক্ষ্য ২০১৩-র জানুয়ারিতে তাপমাত্রা ৯-এ তে নেমে যাওয়ার দিকে।