শনিবার, ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ডাউন ক্যানিং লোকাল ট্রেনের মহিলা কামরায় ধুন্ধুমার কান্ড, জখম ২ নাবালিকা

News Sundarban.com :
জানুয়ারি ১১, ২০২৪
news-image

নিজস্ব প্রতিনিধি, ক্যানিং – ডাউন ক্যানিং লোকালের মহিলা কামরায় নিত্যযাত্রীদের বেধড়ক মারধোরে গুরুতর জখম হল দুই নাবালিকা যাত্রী।সোমবার বিকালে ঘটনাটি ঘটেছে শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখার পিয়ালি স্টেশনে।গুরুতর জখম হয়েছেন চতুর্থ ও দশম শ্রেণীর দুই ছাত্রী।

স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে গোসাবা থানার অন্তর্গত শম্ভুনগর পঞ্চায়েতের ৩ নম্বর কামাক্ষ্যাপুর গ্রামের বাসিন্দা চাঁদসুলতানা গাজী।নৈহাটী তে আত্মীয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন।এদিন বিকালে বাড়িতে ফেরার জন্য ডাউন ক্যানিং লোকাল ট্রেনের মহিলা কামরাতে চেপে বসেন চাঁদসুলতানা ও তাঁর দুই নাবালিকা কন্যা।অভিযোগ সোনারপুর স্টেশন থেকে ট্রেন ছাড়তেই জনৈক দুই মহিলা যাত্রী দুই নাবালিকা কে সীট থেকে জোর করে তুলে দেওয়ার চেষ্টা করে। প্রতিবাদে সরব হন চাঁদসুলতানা গাজী ও তাঁর দুই নাবালিকা কন্যা।অভিযোগ প্রতিবাদ করতেই অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে দুই নাবালিকা কে বেধড়ক মারধর করেন জনৈক নিত্যযাত্রী দুই মহিলা।বেধড়ক মারধরের ঘটনায় গুরুতর জখম হয় দুই নাবালিকা।ট্রেনের অন্যান্য সঙ্গী যাত্রীরা জখম দুই নাবালিকা কে উদ্ধার করে বারুইপুরের উত্তরভাগে একটি বেসরকারী নার্সিংহোমে নিয়ে যায় চিকিৎসার জন্য।সেখানে চিকিৎসা করিয়ে বাড়িতে ফিরছিলেন জখম দুই নাবালিকা ও তাদের মা। পরে আবার অসুস্থ হয়ে পড়ে দুই নাবালিকা।রাতেই তড়িঘড়ি আবার তাদের কে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায় পরিবারের সদস্যরা। বর্তমানে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ওই দুই নাবালিক।

উল্লেখ্য প্রতিদিনই ক্যানিং লোকাল ট্রেনে এক শ্রেণীর নিত্যযাত্রী গোটা ট্রেনটি কে নিজেদের সম্পত্তি মনে করে অন্যান্য যাত্রীদের কে সীট থেকে জোর করে তুলে দেয় বলে অভিযোগ।এছাড়াও অনেক সময় নিত্য নতুন যাত্রীদের ট্রেনের কারমায় উঠতেও দেওয়া হয়না।যদিও এমন ঘটনায় যাত্রী সুরক্ষা নিয়ে প্রশ্নচিহ্ন রয়ে গিয়েছে।

অন্যদিকে সোমবারের ঘটনা প্রসঙ্গে রেল পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে, ‘ট্রেনের কামরায় যে ঘটনা ঘটেছে সে সম্পর্কে ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।’