মঙ্গলবার, ২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কনকনে ঠান্ডার পরশ এখনও পেল না দক্ষিণবঙ্গ

News Sundarban.com :
জানুয়ারি ৪, ২০২৪
news-image

শীতের পরশে শীতল হচ্ছে তিলোত্তমা, শহরের তুলনায় গ্রাম বাংলায় শীত এখন বেশ ভালোই অনুভূত হচ্ছে। তবে, কনকনে ঠান্ডার পরশ এখনও পেল না দক্ষিণবঙ্গ। এরইমধ্যে বৃহস্পতিবার সকালে ঘন কুয়াশার চাদরে ঢাকা পড়ল শহর থেকে গ্রাম, সকাল আটটা পর্যন্ত কুয়াশার চাদরে মোড়া ছিল বঙ্গভূমি। কুয়াশার কারণে দৃশ্যমানতা অনেকটাই কমে যায়। আপাতত কনকনে ঠান্ডা ফেরার কোনও সম্ভাবনাও দেখছেন না আবহবিদরা। আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই মুহূর্তে তাপমাত্রার বিশেষ কোনও হেরফের হবে না। বিহার, পূর্ব উত্তর প্রদেশ ও সিকিম হয়ে রাজ্যে ঢুকছে উত্তর-পশ্চিমী বাতাস, যদিও তা খুব শক্তিশালী নয়। তাই তাপমাত্রা স্বাভাবিক অথবা তার থেকে এক ডিগ্রি ওপরে থাকতে পারে।

আবহবিদরা জানিয়েছেন, ৫-৭ জানুয়ারির মধ্যেই পূর্ব ভারতকে প্রভাবিত করতে পারে পশ্চিমী ঝঞ্ঝা, প্রভাব দেখা দিতে পারে ঝাড়খণ্ড ও দক্ষিণবঙ্গের পশ্চিম প্রান্তে। ৫ জানুয়ারি পশ্চিমের জেলাগুলি অর্থাৎ পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, দুই বর্ধমান, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, ঝাড়গ্রামে হালকা বৃষ্টি হতে পারে। আবার দার্জিলিং-এ হালকা বৃষ্টি ও তুষারপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, আপাতত কলকাতার আকাশ থাকবে পরিষ্কার, সকালের দিকে কুয়াশা থাকবে। একইরকম আবহাওয়া থাকবে লাগোয়া জেলাগুলিতেও। আগামী কিছু দিনে তাপমাত্রার বিশেষ তারতম্য না হলেও, তারপর ফের বাড়তে পারে তাপমাত্রা, ১০ জানুয়ারির পর আবারও তাপমাত্রা কমতে পারে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায়। বৃহস্পতিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৫.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি।