সোমবার, ২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

শীতের লম্বা ইনিংসে বাধা দেবে বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া ঘূর্ণাবর্ত, বাড়বে পূবালি হাওয়ার দাপট

News Sundarban.com :
ডিসেম্বর ২২, ২০২৩
news-image

আগামী সপ্তাহের শুরুতেই বড়দিন। পিকনিক, ঘোরাঘুরি সব মিলিয়েই উৎসবের আমেজ থাকে সেই দিন, শীত পোশাকে শীতের আমেজ উপভোগ করেন বঙ্গবাসী। সেই সময় শীত কেমন থাকবে, তা জানতে আগ্রহী শীতপ্রেমীরা। তবে বড়দিনে এবার শীত ‘কম’ থাকবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। উল্টে তাপমাত্রা খানিক বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। শীতের লম্বা ইনিংসে বাধা দেবে বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া ঘূর্ণাবর্ত। বাড়বে পূবালি হাওয়ার দাপট। আর সে কারণেই রাজ্যে প্রবেশ করবে না উত্তর-পশ্চিমের শীতল বাতাস।

সপ্তাহান্তেই ২ থেকে ৩ ডিগ্রি পর্যন্ত বাড়তে পারে তাপমাত্রা। এমনকি বর্ষবরণের সপ্তাহেও রাজ্যের মাথায় থাকবে মেঘের চাদর। আরব সাগরে সম্ভাবনা রয়েছে ঘূর্ণাবার্ত তৈরি হওয়ারও। আবহবিদরা জানিয়েছেন, রবিবার থেকে গোটা রাজ্যেই সর্বনিম্ন তাপমাত্রা একটু একটু করে বাড়বে। সোমবার বড়দিন। ওই দিন থেকেই রাতের তাপমাত্রা আপাতত কয়েক দিনের জন্য ২-৩ ডিগ্রি বাড়তে পারে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। তবে কেবল দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতেই নয়, তাপমাত্রা বাড়তে চলেছে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতেও। এর ফলে কনকনে শীত খানিক কমলেও সামগ্রিক ভাবে কোনও প্রভাব টের পাওয়া যাবে না বলেই মনে করা হচ্ছে।

শুক্রবার সকালে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৫.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, ডিসেম্বরের এই সময় কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৫ ডিগ্রির আশপাশে থাকলে তাকে স্বাভাবিকই বলা চলে। তবে আগামী কয়েক দিনে তাপমাত্রা স্বাভাবিকের গণ্ডি টপকাতে পারে। নতুন বছরের শুরুতেও একই পরিস্থিতি থাকবে কি না, তা অবশ্য এখনও স্পষ্ট নয়।