বৃহস্পতিবার, ২৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কানাডায় বিদ্বেষমূলক হামলার শিকার ভারতীয়রা

News Sundarban.com :
ডিসেম্বর ৭, ২০২৩
news-image

কানাডায় বিদ্বেষমূলক হামলার শিকার ভারতীয়রা ! চলতি সপ্তাহের শুরুতে গ্রেটার টরন্টোর তিনটি ভিন্ন ভিন্ন এলাকায় হিন্দি সিনেমা দেখতে যাওয়া দর্শকদের উপর রহস্যজনক হামলার খবর পাওয়া গিয়েছে। সিনেমা চলাকালীন হলের মধ্যে ঢুকে পড়ে মুখোশধারী কয়েকজন দর্শকদের লক্ষ্য করে একটি অজানা পদার্থ স্প্রে করে তারা। কেউ গুরুতর অসুস্থ না হলেও, হামলার শিকার অনেককেই হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে চিকিত্সার জন্য। কে বা কারা ওই হামলা চালিয়েছে এবং তারা কী স্প্রে করেছিল, এই প্রশ্নগুলির জবাব এখনও পাওয়া যায়নি। তবে এই ঘটনাকে বিদ্বেষমূলক হামলা বলে প্রকারান্তরে মেনে নিচ্ছে কানাডার পুলিশ।

ইয়র্ক অঞ্চলের পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে ভন এলাকার একটি সিনেমা হলে এমন একটি হামলার ঘটনা ঘটেছে। হলের মধ্যে মুখোশ পরা দুই ব্যক্তি ঢুকে পড়ে, একটি অজানা পদার্থ বাতাসে স্প্রে করে। স্পে করা পদার্থটি বাতাসে ছড়িয়ে পড়তেই দর্শকদের চোখ জ্বালা শুরু হয়েছিল। সেই সঙ্গে সিনেমা দর্শকদের মধ্যে বেশ কয়কজন কাশতে শুরু করেন। প্রায় ২০০ মানুষ ওই হলে ছিলেন। একটি হিন্দি সিনেমা দেখান হচ্ছিল। এরপর, হল খালি করে ওই পদার্থের সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের চিকিত্সা জন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। খবর দেওয়া হয় পুলিশেও। তবে, পুলিশ আসার আগেই হামলাকারীরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়।

পুলিশ আরও জানিয়েছে, হামলাকারীদের কেউই শ্বেতাঙ্গ নয়। প্রথমজনের গায়ের রঙ বেশ কালো, দ্বিতীয়জনের গায়ের রঙ বাদামী বলা যেতে পারে। তবে শুধু ইয়র্ক অঞ্চলেই নয়, চলতি সপ্তাহে পিল এবং টরন্টো এলাকাতেও একই ধরনের ঘটনা ঘটেছে। পিল পুলিশ জানিয়েছে, ব্রাম্পটনের একটি প্রেক্ষাগৃহে একইভাবে কোনও অজানা পদার্থ স্প্রে করেছিল হামলাকারীরা। এই ক্ষেত্রেও কোনও গুরুতর অসুস্থতার খবর পাওয়া যায়নি। একইভাবে টরন্টোর স্কারবোরো টাউন সেন্টারের একটি সিনেমা হলে ‘স্টিঙ্ক বোমা’ রাখা আছে বলে হুমকি ফোন এসেছিল। হলটি খালি করে তল্লা চালানো হয়। তবে, বিপজ্জনক কিছু পাওয়া যায়নি।

আরও দেখুন