বুধবার, ৬ই ডিসেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

জেটিঘাটের নদীবাঁধে ধস, পর্যটকহীন ঝড়খালি, আতঙ্কিত স্থানীয় ব্যবসায়ীরা

News Sundarban.com :
নভেম্বর ৫, ২০২৩
news-image

নিজস্ব প্রতিনিধি,ঝড়খালি – জেটিঘাটের নদীবাঁধে বড়সড় ধস নামায় মহাবিপাকে পড়েছে সুন্দরবনের অন্যতম পর্যটন কেন্দ্র ঝড়খালি।বর্তমানে পর্যটক শূণ্য।যে সমস্ত পর্যটকরা আসছে তাঁরা সেখানে থেকে সুন্দরবন যেতে না পারায় ফিরে যাচ্ছেন।

স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে সুন্দরবনের অন্যতম ঝড়খালি পর্যটন কেন্দ্রে বাঘ রয়েছে। প্রতি বছরই লক্ষ লক্ষ পর্যটকরা ঝড়খালিতে ভ্রমণ করতে আসেন। পাশাপাশি ঝড়খালি হয়ে জলযান যোগের মাধ্যমে সুন্দরবন ভ্রমণ করেন। বর্তমানে ঝড়খালির সেই অন্যতম জেটিঘাট নদীগর্ভে বিলীন হতে বসেছে। গত শুক্রবার থেকে আচমকা হেড়োভাঙা নদীর জলের দাপটে জেটিঘাট সংলগ্ন এলাকার নদীবাঁধে ধস নেমেছে। ইতিমধ্যে বেশকিছু দোকানপাট,একটি পার্টী অফিস ও একটি মন্দির গ্রাস করে নিয়েছে হেড়োভাঙা নদী।

এমন ঘটনায় আতঙ্কিত স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।যে কোন মুহূর্তে আরো বড় ধরনের ভাঙন হতে পারে। সেই আশাঙ্কায় অন্যান্য ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসার জিনিসপত্র সহ দোকান ঘর ভেঙে অন্যত্র সরে যাচ্ছেন।বিপদ এড়াতে প্রশাসনের তরফে ভাঙন এলাকায় পর্যটক ও সাধারণ মানুষদের কে নিষেধ করে যাতায়াতের পথ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি জেসিবি দিয়ে ভাঙন এলাকায় মাটি ফেলার কাজ চলছে।এতোসবের মধ্যেও শনিবারও ভাঙন অব্যাহত ছিল।এলাকার মানুষের দাবী সামনে কালিপুজোর অমাবস্যা। ভরা কোটাল।এমন ভাবে ভাঙন চলতে থাকলে ঝড়খালি জেটিঘাটের বড় একটা অংশ হেড়োভাঙা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে।