বুধবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আহমেদাবাদে ভারতীয় দলের সামনে উড়ে গেল পাকিস্তান

News Sundarban.com :
অক্টোবর ১৪, ২০২৩
news-image

১১৭ বল বাকি থাকতে মাত্র ৩ উইকেট খুইয়ে পাকিস্তানের দেওয়া ১৯২ রানের লক্ষ্যে পৌঁছে গেল টিম ইন্ডিয়া । বিশ্বকাপে এর আগে সাত সাক্ষাতেই পাকিস্তানকে হারিয়েছিল ভারত। কিন্তু শনিবারের আহমেদাবাদে রোহিত শর্মারা যে দাপটের সঙ্গে পাকিস্তান দলকে বধ করলেন, সেই দাপট সম্ভবত এর আগে আর কোনও ভারত-পাক ম্যাচে কোনও ভারতীয় দলই দেখাতে পারেনি।

শনিবার আমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে পাটা পিচে টস জেতেন রোহিত শর্মা। ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিতে অনেকেই অবাক হন। পাকিস্তান অধিনায়কও বলেন, তিনিও টস জিতলে ফিল্ডিং করতেন! পাকিস্তানের ব্যাটিং শুরু হতেই রোহিতের সিদ্ধান্ত ভুল মনে হচ্ছিল। প্রথম স্পেলে মহম্মদ সিরাজের বোলিংও হতাশ করার মতোই। লাইন, লেন্থ কোনওটাই ঠিক হচ্ছিল না। বুমরা রান আটকাতে সফল হলেও উইকেট আসছিল না। দুই ওপেনারকে হারিয়ে বাবর আজম এবং মোহাম্মদ রিজওয়ান বড় সংগ্রহের পথেই এগোচ্ছিল।দুজনের পাটনারশিপে যোগ হয়েছিল ৮৩ রান।কিন্তু হুট করেই খেই হারিয়ে ফেলে বাবর আজমের দল। অধিনায়কের বিদায়ের পর দ্রুত সময়ের ব্যবধানে অলআউট হয় দলটি। তিন উইকেটে ১৫৫ রান থেকে ১৯১ রানে অলআউট হয়ে যায় পাকিস্তান। পাকিস্তানের হয়ে বেশি রান করেন অধিনায়ক বাবর আজম(৫০) ও মোহাম্মদ রিজওয়ান(৪৯)।

এদিন ভারতের হয়ে ৫ জন বোলার দুটি করে উইকেট নেয়। শার্দূল ঠাকুর ছাড়া সকলেই দুটি করে উইকেট নিয়েছেন। এর মধ্যে আলাদা করে বলতে হয় জসপ্রীত বুমরার ৭-১-১৯-২ বোলিং পরিসংখ্যান। প্রথম স্পেলে উইকেটহীন ছিলেন। নতুন স্পেলে ধস নামালেন। এশিয়া কাপে সুপার ফোরের ম্যাচে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে পাঁচ উইকেট নিয়েছিলেন কুলদীপ যাদব। গত ওডিআই বিশ্বকাপেও নিয়েছিলেন ২ উইকেট। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এ দিনও সফল কুলদীপ যাদব। এ বার ব্যাটন ব্যাটারদের হাতে। শাহিন আফ্রিদির প্রথম স্পেল সামলে দিলে এই লক্ষ্য কঠিন হওয়ার কথা নয়।