রবিবার, ৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আবাসিক হোটেল ঘর থেকে যুবকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার, এলাকায় চাঞ্চল্য, তদন্তে পুলিশ

News Sundarban.com :
সেপ্টেম্বর ২১, ২০২৩
news-image

নিজস্ব প্রতিনিধি, দক্ষিণ ২৪ পরগনা – আবাসিক হোটেল ঘর থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় এক যুবকের দেহ উদ্ধার কে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ালো।বুধবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে ক্যানিং থানার ক্যানিং বাসষ্ট্যান্ড সংলগ্ন ’সুন্দরবন টুরিষ্ট লজ’ এ।এমন ঘটনা চাউর হতেই এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।আবাসিক হোটেলে জমা দেওয়া পরিচয় পত্র থেকে জানা যায় মৃত যুবকের নাম রাজেশ মন্ডল(২৪)। মৃতের বাড়ি জীবনতলা থানার অন্তর্গত তাম্বুলদহ ১ পঞ্চায়েতের কাওরাখালি গ্রামে।ঘটনার খবর পেয়ে ক্যানিং থানার পুলিশ ওই আবাসিক লজ থেকে যুবক কে উদ্ধার করে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ক্যানিং থানার পুলিশ।জানা গিয়েছে বুধবার সন্ধ্যায় বছর চব্বিশ বয়সের রাজেশ মন্ডল ও এক মহিলাকে নিয়ে ক্যানিংয়ের সুন্দরবন আবাসিক টুরিষ্ট লজে ওঠে।যুবকের পরিচয় পত্র হোটেলের রেজিষ্টার খাতায় উল্লেখ থাকলেও মহিলার কোন পরিচয় উল্লেখ ছিল না।রাত প্রায় নটা নাগাদ ওই মহিলা হোটেল থেকে জল আনতে যাওয়ার নাম করে বেরিয়ে যায় বলে হোটেল কেয়ার টেকারের দাবী।দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হলে,মহিলা না ফিরে আসায় হোটেলের কেয়ারটেকার ঘরটি দেখতে যায়।সেখানে রাজেশ মন্ডল নামে ওই যুবক কে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায় বলে আবাসিক হোটেলের কেয়ারটেকারের দাবী। এরপর আবাসিক হোটেল থেকে পুলিশ কে খবর দেওয়া হয়।ঘটনাস্থলে হাজীর হয় ক্যানিং থানার পুলিশ। পুলিশ ওই যুবক কে উদ্ধার করে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষনা করেন।

উল্লেখ্য আবাসিক হোটেলে পরিচয় পত্র জমা নিয়েই তারপর হোটেলে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়। সেক্ষেত্রে সুন্দরবন টুরিষ্ট লজ(আবাসিক) কর্তৃপক্ষ পুরুষের পরিচয় পত্র জমা নিলেও মহিলার কোন পরিচয় পত্র জমা না নেওয়ায় ধোঁয়াশা তৈরী হয়েছে। অন্যদিকে জনসমক্ষে এমন ঘটনা চাউর হতেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, ওই যুবক আত্মঘাতী হলেন ? না,তাকে পরিকল্পিত ভাবে খুন করা হয়েছে?এছাড়াও ক্যানিংয়ের বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে দেহ ব্যবসা চলছে রমরমিয়ে?এমন প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। যদিও মৃতদেহটি ময়না তদন্তে পাঠিয়ে সমগ্র ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ক্যানিং থানার পুলিশ।