রবিবার, ১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নামখানায় বাল্যবিবাহ রোধে স্বয়ংসিদ্ধা কর্মসূচি

News Sundarban.com :
আগস্ট ৩১, ২০২৩
news-image

নিজস্ব প্রতিনিধি, নামখানা:  বাল্যবিবাহ নিয়ে সচেতনতার শিবির হল নামখানায়। একবিংশ শতাব্দীতে দাঁড়িয়ে ও সুন্দরবনের মতো প্রত্যন্ত অঞ্চলেও বাল্যবিবাহের মতো সামাজিক ব্যাধি দেখা যায়। বিশেষ করে করোনা কালে লকডাউনের পর থেকে বাল্যবিবাহের আধিক্ষ্যটা বেশি বেড়েছে। বর্তমান সময়ে ছেলেমেয়েদের প্রেম করে পালিয়ে বিয়ে করার জন্য বাল্যবিবাহের মতো সামাজিক ব্যাধি দেখা যায়।

তবে এসবের জন্য স্মার্ট ফোনকে দায়ী করেছেন অনেকেই। যদিও সরকারের পক্ষ থেকে একাধিক প্রকল্প তৈরি করা হয়েছে বাল্যবিবাহ রোধের জন্য। কন্যাশ্রী থেকে রূপশ্রী প্রকল্প তৈরি করেছে রাজ্য সরকার, শুধু বাল্যবিবাহ নয়,শুধু বাল্যবিবাহ নয়শুধু বাল্যবিবাহ নয়, বর্তমান সময়ে শিশু নির্যাতন নারী পাচার শিশুশ্রম বধূ নির্যাতনের মত সামাজিক ব্যাধি এখন ও দেখা যায়। তবে এসবের বিরুদ্ধে সুন্দরবনের বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের পাশাপাশি সরকারিভাবে বিভিন্ন সচেতনতামূলক শিবির গ্রহণ করা হয়। বৃহস্পতিবার দিন দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার নামখানা থানার নামখানা ইউনিয়ন রানী রাসমণি বালিকা বিদ্যালয়ে বাল্যবিবাহ রোধে নামখানা থানার পক্ষ থেকে স্বয়ংসিদ্ধা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়।

এই কর্মসূচির মূলকথা নিজে সচেতন হন অপরকেে সচেতন করুন। এদিন বাল্যবিবাহ, শিশু নির্যাতন, শিশুশ্রম ,নারী পাচার ,বধূ নির্যাতন এগুলি যে অপরাধ সে বিষয়ে সচেতন করা হয়। এদিনের কর্মসূচিতে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন রূপান্তরণ ফাউন্ডেশন উপস্থিত ছিলেন। এ দিনের কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন নামখানা থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক বিভাস সরকার।

এদিন তিনি বলেন সমাজের সামাজিক ব্যাধি গুলি দূর করার জন্য, ছোটদের পাশাপাশি বড়দেরও এগিয়ে আসতে হবে। আজকে শুধু নয়, আগামীতেও এরকম কর্মসূচি গ্রহণ করবো থানার পক্ষ থেকে। এদিন ছেলেমেয়েদের চাইল্ড লাইনের হেল্পলাইন নাম্বার ১০৯৮ বাদেও একটি হেল্পলাইন নাম্বার রূপান্তরণ ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে দেয়া হয় নাম্বারটি হল ৯৭৩২৬৯৫৮০৭। এদিন রূপান্তরণ ফাউন্ডেশন এর পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন অরূপ কুমার মান্না ও সোমা মাইতি।