বুধবার, ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ধানক্ষেতে ৫ ফুট লম্বা কেউটে উদ্ধার

News Sundarban.com :
আগস্ট ১২, ২০২৩
news-image

সুভাষ চন্দ্র দাশ,ক্যানিং – বিশাল আকৃতির কেউটে সাপ উদ্ধার করে একটি সংস্থার হাতে তুলে দিলেন গ্রামবাসীরা। সাত সকালে বিশাল আকৃতির বিষধর কেউটে সাপ ঘিরে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।শনিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে ক্যানিং থানার অন্তর্গত গোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বধুকুলা গ্রামে। জানাগিয়েছে মাছ ধরার জন্য অন্যান্য দিনের মতো ধানক্ষেতে আটল(ঘুনি) বসিয়েছিলেন বধুকুলা গ্রামের বাসিন্দা বাসুদেব হালদার। সকালে ধানক্ষেতে গিয়েছিলেন আটল তুলতে।আটল তোলার আগে ফোঁসফোঁস গর্জন শুনতে পায় বাসুদেব।ভয়ে জড়োসড়ো হয়ে যায়।কি করবেন ভেবে উঠতে পারছিলেন না। গ্রামবাসীদের কে খবর দেয়।গ্রামবাসীরা মিলিতভাবে আটলটি কে তুলতেই তাদের চক্ষু ছানাবড়া হয়ে যায়।আটলের মধ্যে প্রায় পাঁচ ফুট লম্বা বিশাল আকৃতির বিষধর কেউটে সাপ গর্জন করছে।জল থেকে কোন রকমে ডাঙায় তুলে আনেন।খবর পেয়ে ইতিমধ্যে কয়েকশো গ্রামবাসী জড়ো হয় সাপটি দেখার জন্য। কেউ কেউ সাপটি মেরে ফেলার জন্য উদ্যত হন। গ্রামের কয়েকজন শুভবুদ্ধি সম্পন্ন যুবক এবং বাসুদেব হালদার সাপটি না মারার জন্য আবেদন করেন।পরে তারা সাপ নিয়ে সচেতন করা ক্যানিংয়ে একটি সংস্থাকে ফোন করেন। সাপটি উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়ার জন্য।সাপ নিয়ে সচেতন করা সংস্থার সদস্য নীরা দাস খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে বিশাল আকৃতির কেউটে সাপটি উদ্ধার করেন।হাঁফ ছেড়ে বাঁচেন গ্রামবাসীরা।

নীরা দাস জানিয়েছেন, উদ্ধার হওয়া বিশাল আকৃতির কেউটে সাপটি সুন্দরবনের জঙ্গল লাগোয়া এলাকায় ছেড়ে দেওয়া হবে।

অন্যদিকে বাসুদেব হালদার জানিয়েছেন, সাপ পরিবেশ বান্ধব। তাই না মেরে সংস্থার হাতে তুলে দিয়েছি।

ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালের সর্প বিশেষঞ্জ চিকিৎসক ডাঃ সমরেন্দ্র নাথ রায় জানিয়েছেন, ‘সাপ না মেরে উদ্ধার করে ছেড়ে দেওয়া ভালো উদ্যোগ। কারণ সাপ আমাদের পরিবেশ বান্ধব।সাপ একেবারেই মারা উচিৎ নয়।প্রাকৃতিক ভারসাম্য বজায় রাখার জন্য সাপ কে বাঁচিয়ে রাখা জরুরী।তবে সাপ থেকে সকল কে সতর্ক এবং সচেতন থাকতে হবে।’