সোমবার, ২৪শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

দূর্ঘটনায় আহত বাবা মা হারা অসহায় বালকের পাসে দাঁড়ালেন মন্ত্রী

News Sundarban.com :
জুলাই ২৮, ২০২৩
news-image

শিল্পা মাইতি, সাগর: লরির ধাক্কায় গুরুতর যখম ৯ বছরের শেখ আব্দুল আলির পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী বঙ্কিমচন্দ্র হাজরা।স্থানীয় সূত্রে জানা যায় রবিবার দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার সাগর থানার অন্তর্গত সাগরের বামনখালীর মাইতি মোড়ের কাছে রাস্তা পারাপার করছিল ৯ বছরের এক বালক।

ওই সময় সাগরের রুদ্রনগরের দিক থেকে একটি লরি সাগরের কচুবেড়িয়া দিকে যাওয়ার পথে ওই বালককে ধাক্কা মারে । ঘটনাস্থলে ওই নাবালক গুরুতর জখম হয়। এরপর স্থানীয়রা উদ্ধার করে সাগর গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যায়।  হাসপাতালে ওই বালকের অবস্থার অবনতি হওয়ায় ওই নাবালককে চিকিৎসার জন্য রবিবার বিকেলে ডায়মন্ড হারবার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের স্থানান্তরিত করা হয়।

এরপর ২৪ শে জুলাই ওই কিশোরকে ডায়মন্ড হারবার মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে পিজি হাসপাতালের স্থানান্তরিত করা হয়। এই পরিস্থিতিতে ওই বালককে বাবা মা না থাকার কারনে মামার বাড়ি তে মানুষ। পরিবারের আর্থিক অবস্থা খুবই খারাপ হওয়ার কারণে, পরিবারের লোকজন চিকিৎসা করাতে পারেনি। তাই হারমেনে পিজি হাসপাতাল থেকে ওই বালককে তার পরিবারের লোকজন ট্রেনে করে বাড়িতে নিয়ে আসে। তাদের আর্থিক অবস্থা এতটাই খারাপ ছিল যে হাসপাতাল থেকে অ্যাম্বুলেন্সে ব্যাবস্থা করা সম্ভব হয়নি তাদের বাধ্য হয়ে ট্রেনে করে ওই বালককে  বাড়ি নিয়ে আসা হয়। এরপর ওই ঘটনার খবর জানতে পারেন স্থানীয় বিধায়ক তথা মন্ত্রী বঙ্কিমচন্দ্র হাজরা। তিনি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কোলকাতা থেকে বাড়ি ফেরার পথে ওই বালকের পরিবারের সঙ্গে দেখা করলেন এবং এদিন সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী ওই বালকের চিকিৎসার পুরো খরচের দায়িত্ব তিনি নিলেন। একটা সময়ে পরিবারের লোকজনেরা মনে করছিলেন বাবা মা হারা অসহায় ওই বালককে হয়তো বাঁচানো সম্ভব নয়। শেষমেষ সুন্দরবন উন্নয়নমন্ত্রী তথা স্থানীয় বিধায়ক চিকিৎসার দায়িত্ব নেওয়া খুশি পরিবারের লোকজনেরা।