রবিবার, ১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সাগরে বিজেপি প্রার্থীর পুকুরে বিষ ফেলার অভিযোগ

News Sundarban.com :
জুলাই ১৮, ২০২৩
news-image

শিল্পা মাইতি, সাগর: সাগরের বিজেপি প্রার্থীর পুকুরে বিষ ফেলাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ালো এলাকায়। শনিবার দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার সাগর ব্লকের রুদ্রনগর এর ১১৫ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের বিজেপি প্রার্থী নিতুশ্রী দাস অধিকারীর পুকুরে বিষ ফেলাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ালো এলাকায়।

এই নিয়ে সাগরের রুদ্রনগর এলাকার , ১১৫ নম্বর বুথের বিজেপি প্রার্থী নিতুশ্রী দাস অধিকারীর শাশুড়ির অভিযোগ যে রাতের অন্ধকারে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তাদের পুকুরে বিষ ফেলে যায়। এর ফলে প্রায় পাঁচ কুইন্টাল মত মাছ মারা যায় বলে দাবি । শনিবার সকালে তিনি মাঠের দিকে চলে যান তার পরে ঠিক সকাল নটার দিকে বাড়ি ফেরার সময় দেখেন যে পুকুরের সব মাছ মরে গেছে। বিজেপি প্রার্থী নিতুশ্রী দাস অধিকারীর শাশুড়ির আরো অভিযোগ এর আগেও তাদেরকে অনেক ধমকানো হয়েছে তাতে কোন ফল না হওয়ায় তারা এই কাজ করেছে।

এ বিষয়ে সাগর ব্লকের তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক সন্দ্বীপ পাত্র বলেন, এই অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। ভোটের আগেও আমাদের ১১৫ নম্বর বুথের কর্মী মিঠুদার পুকুরে বিষফেলা হয়েছিল, সে বিষয়ে আমরা কোনো অভিযোগ করিনি। কিন্তু এদের পুকুরে আমাদের কর্মীদের নামে যে বিষ ফেলার অভিযোগ হচ্ছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। সাগরের রুদ্রনগর এলাকার মানুষজন আমাদেরকে ভালবাসে, দুহাত ভরে আশীর্বাদ করেছেন এবং রুদ্রনগর গ্রাম পঞ্চায়েতের একটিমাত্র আসন বিজেপি পেয়েছে লোকসভা এবং বিধানসভা তে ওরা সম্পূর্ণভাবে মুছে যাবে। সাগরের মানুষরা আমাদের আবারও দুহাত ভরে আশীর্বাদ করবে। এ বিষয়ে সাগর ব্লকের বিজেপির ইনচার্জ খগেন মণ্ডল বলেন তৃণমূল যেভাবে আইনশৃঙ্খলা কে তলানিতে ঠেকিয়েছে তার জন্য ৩৫৫ ৩৫৬ ধারা জারি করা উচিত। আমাদের সাগরের ১১৫ নম্বর বুথের মহিলা প্রার্থী। এ বছর তিনি বিজেপি থেকে জয়ী হয়েছেন। তার পুকুরে বিষ পেলে পুকুরের মাছ মেরে ফেলা হয়েছে। তার অপরাধ সে বিজেপিতে দাঁড়িয়েছে। এই অন্যায়ের কঠোর শাস্তির দাবি জানাই।