বৃহস্পতিবার, ১৯শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

লটারীর টিকিট কেটে রাতারাতি কোটিপতি হলেন নামখানার ভোলানাথ বাবু

News Sundarban.com :
মে ১৫, ২০২২
news-image

নামখানা :  লটারীর টিকিট কেটে রাতারাতি কোটিপতি হলেন সুন্দরবনের এক যুবক। পেশায় দিনমজুর। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার প্রত্যন্ত সুন্দরবনের নামখানা  ব্লকের মৌসুমী দ্বীপের কুসুম তলা এলাকায়। প্রত্যন্ত এই গ্রামে দারিদ্রতার সাথে লড়াই করে বসবাস করেন ভোলানাথ হাজরা।

এক মেয়ে ও এক ছেলে এবং স্ত্রী  কে নিয়ে অভাবের সংসার এই দিনমজুরের। জীবন জীবীকার টানে কয়েক দিন  বাড়ি ফেরার পথে বেশকিছু টাকার লটারীর টিকিট কিনতেন ভোলানাথ বাবু।

আশা ছিল যদি কোনদিন ভাগ্য পরিবর্তন হয়। অবশেষে ঘটলো ভাগ্যের পরিবর্তন। তাও আবার এক লাখ কিংবা দুলাখ টাকা নয়। একেবারেই এক কোটি টাকা পেলেন লটারীতে।

উল্লেখ্য ভাঙাচোরা ঘরের চাঁদের আলোতে কোনো মতে সংসার চলে দিনমজুর ভোলানাথ বাবুর। তিনি ভাবতেই পারেননি যে এদিন তাঁর ভাগ্যের শিকে ছিঁড়বে।

ভোলানাথ বাবুর লটারি টিকিট কাটার নেশা ছিল । আর সেই লটারির টিকিটে আজ তিনি কোটিপতি। লটারীতে কোটি টাকা পেয়ে কি করবেন ভেবে উঠতে পারছিলেন না।  তিনি তৎক্ষনাৎ লটারী কাউন্টারে যোগাযোগ করেন। যোগাযোগ করলে এক কোটি টাকা তুলে দেন ভোলানাথ বাবুর হাতে।

তিনি বলেন, 12 মে একটি লটারির টিকিট কেটেছিলাম ডি আর  কোম্পানির। যার প্রথম পুরস্কার ছিল এক কোটি টাকা। সেই লটারি খেলা হলে আমার টিকিট নম্বর মিলে যায়। এতগুলো টাকা নিয়ে যথারিতি আমি ভয়েভয়ে রয়েছি। আমাদের কোনো রকমের সংসার চলতো এবারে আমি আমার ছেলেমেয়েদের পড়াশোনার কোনো অভাব বুঝতে দেবনা। আর ভাঙচোরা ঘরটি মেরামতি করবো

এই টাকা পেয়ে রাতারাতি ভাগ্য খুলে গেল ভোলানাথ বাবুর। আর এই টাকা পেয়ে সে এখন কোটিপতি যা সুন্দরবনের বুকে বিরল ইতিহাস।