শুক্রবার, ২৭শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

২০ মের পর বিভিন্ন জেলার সভাপতি ও ব্লক সভাপতিদের বদলে ফেলবেন মমতা

News Sundarban.com :
মে ৭, ২০২২
news-image

তৃতীয় তৃণমূল সরকার গঠনের পর সবে এক বছর হয়েছে। এরইমধ্যে একের পর এক দুর্নীতির অভিযোগে বিদ্ধ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের  দল। তৃণমূলনেত্রী নিজে অত্যন্ত সাধারণ জীবন যাপন করলেও তাঁর দলের নিচুতলার নেতাদের একাংশ যে বিভিন্ন অনৈতিক কাজকর্মে জড়িয়ে পড়েছেন তা অস্বীকার করার উপায় নেই।

পাঁচ বছরে পথের ভিখারি থেকে তৃণমূলের একের পর এক ব্লক সভাপতি বেতাজ বাদশায় পরিণত হয়েছেন। তা মানুষ মোটেও ভালভাবে নিচ্ছে না। আগামী বছর পঞ্চায়েত নির্বাচন। তার আগে পরিস্থিতি সামাল দিতে দ্রুত ঘর গোছানো প্রয়োজন তৃণমূলের। না হলে মানুষের ক্ষোভকে প্রশমিত করা সম্ভব হবে না। বৃহস্পতিবার দলের নতুন অস্থায়ী কার্যালয়ে প্রথমবারের জন্য গিয়ে সেই কথাই ঘোষণা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দলের নিচুতলার নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষের ক্ষোভ ও তাদের অনৈতিক কাজ কর্ম যে পুরোপুরিভাবে তাঁর নখদর্পণে আছে সেটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথা থেকে পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে।

ঘোষণা করেছেন 20 মের পর বিভিন্ন জেলার সভাপতি ও একেবারে নিচুতলার ব্লক সভাপতিদের অনেককেই তিনি বদলে ফেলবেন। তবে এই গোটা কাজটা যে কলকাতা থেকে চাপিয়ে দেবেন না তাও জানিয়েছেন তৃণমূলনেত্রী। একেবারে নিচুতলার কর্মীদের চাহিদা শুনে, রিপোর্ট নিয়েই তিনি পরিবর্তন করবেন বলে দলের রাজ্য নেতাদের সামনে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন মমতা।

এই রকম পরিস্থিতিতে সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী বঙ্কিমচন্দ্র হাজরা আজ নামখানা ব্লকের শিবরামপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ব্যবস্থাপনায় এক কর্মী সভায় উপস্থিত হবেন। শুনবেন কর্মীদের কথা। রাজ্য সরকারের উন্নয়নের 11 বছর পূর্তির কর্মসূচি ও এই উন্নয়নকে হাতিয়ার করে আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচনকে পাখির চোখ করছেন।