বৃহস্পতিবার, ৭ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

দার্জিলিং চা’কে স্বীকৃতি দিয়ে বিশেষ কভার ও পার্সেল ক্যাফের উদ্বোধন

News Sundarban.com :
মার্চ ৮, ২০২২
news-image

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দার্জিলিং চা জগৎবিখ্যাত। এই চায়ের গুণমান, সুগন্ধের জন্য এ রাজ্য, দেশ নয় বিদেশেও রয়েছে এর ব্যাপক চাহিদা।  সেই বিখ্যাত চা’কে স্বীকৃতি দিয়ে ‘দার্জিলিং টি’ বিশেষ কভারের সূচনা করা হয়। অপরদিকে, তরুণ প্রজন্ম রাজ্যের বাইরে থাকা তাদের প্রিয়জনকে বিভিন্ন উৎসব, জন্মদিন, বিবাহ-সহ নানা বিষয়ে শুভকামনা বা শুভেচ্ছা জানাতে উপহার দিয়ে থাকেন। তাদের আরো উৎসাহিত করতে নস্টালজিক ও হেরিটেজ বিল্ডিং জিপিওতে তাদের মনোরম পরিবেশের ছোয়া তুলে দিতে ভারতে প্রথম ‘শিউলি পার্সেল ক্যাফে”র উদ্বোধন করা হয়। এই ক্যাফেতে পার্সেল বুকিংয়ের পাশাপাশি থাকছে আকর্ষণীয় ডাক টিকিট সংগ্রহ সংক্রান্ত উপহার, প্যাকেজিং ও উপহার সামগ্রী প্যাকিংয়ের সুবিধা।

মঙ্গলবার  কলকাতা জিপিও-র  তরফে ‘দার্জিলিং টি’-র ওপর বিশেষ কভার এবং ‘পার্সেল ক্যাফে’র উদ্বোধন করা হয়। ‘দার্জিলিং টি’ ও  ‘পার্সেল ক্যাফে’র শুভ সূচনা করেন  পশ্চিমবঙ্গের চিফ পোস্ট মাস্টার জেনারেল জে চারুকেসি। একইসঙ্গে এদিন কলকাতা জিপিওর পাশপাশি দমদম, পার্ক স্ট্রিট, বড় বাজার, আলিপুর পোস্ট অফিসেও এর  সূচনা করা হয়। এছাড়া জিপিও থেকে পতাকা নাড়িয়ে একটি মোবাইল পার্সেল বুকিং ভ্যানও চালু  করা হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কলকাতা অঞ্চলের পোস্ট মাস্টার জেনারেল নীরজ কুমার, টি বোর্ডের অর্থনৈতিক উপদেষ্টা তথা মুখ্য হিসাবরক্ষক আধিকারিক একে মুখার্জি-সহ জিপিও’র অন্যান্য আধিকারিকেরা। চিফ পোস্ট মাস্টার জেনারেল জে চারুকেসি বলেন, “আজ পার্সেল ক্যাফের উদ্বোধন করা হল। এটি কলকাতা পোস্ট অফিসের ভাবনা। এক্সক্লুজিভ পার্সেল বুকিংয়ের সুবিধা থাকছে। জিপিওতে পার্সেল বুকিংয়ের সাথে মনোরম পরিবেশ উপভোগ করাতে গ্রাহকদের চা, কফি পানেরও  ব্যবস্থা থাকছে। পার্সেল বুকিংয়ের পর পদ্ধতি সম্পন্ন হতে যে সময় লাগবে। সেই সময়টা হেরিটেজ বিল্ডিংয়ের ক্যাফেতে গ্রাহকেরা অতিবাহিত করতে পারবেন।”

দার্জিলিং টি কভার প্রসঙ্গে বলেন, “দার্জিলিং টি বিশেষ জি আই ট্যাগ পেয়েছে। ওদেরকে বিশেষ স্বীকৃতি দিতেই বিশেষ কভার বের করা হয়েছে। বিশ্ববিখ্যাত চা’কে কেউ রেপ্লিকেট  করতে পারবে না। তাই দার্জিলিং চাকে শোকেস করতেই এই বিশেষ কভার।” পাশাপাশি পোস্ট মাস্টার জেনারেল নীরজ কুমার বলেন, “পার্সেল বুকিংয়ের পাশাপাশি এখানে বসে হেরিটেজ বিল্ডিংয়ের পরিবেশ উপভোগ করতে পারবে। শুধুমাত্র তরুণ প্রজন্ম নয়, প্রত্যেকে এখানে এসে বুকিং করতে পারবেন।”