সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সাগ্নিকদা টলিউডের বলিষ্ঠ অভিনেতা, বললেন অভিনেতা অর্কজ্যোতি রায়

News Sundarban.com :
ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০২২
news-image

 বিবেকানন্দ বসাক

পর্ব-১

পুলিশ অফিসার, দাপুটে মস্তান হোক বা রাউডি চরিত্র অর্থাৎ হিরো, ভিলেন, ক্যামিও, পজিটিভ সব ধরনের চরিত্রেই সাবলীল অভিনয় প্রতিভার পরিচয় দিয়েছেন অভিনেতা সাগ্নিক সাঁতরা। “দেবীচৌধুরানী” ধারাবাহিকের বিষয় ডাকাত, “মহাপীঠ তারাপীঠ”-এর বড়কুমারের জনপ্রিয়তা নিয়ে কোনও সংশয় নেই। নামীদামি টলিউড অভিনেতা সাগ্নিকের জীবনের গল্প নিউজ সুন্দরবন ডট কম-এর প্রতিবেদককে শোনালেন প্রখ্যাত টলিউড অভিনেতা অর্কজ্যোতি রায়।

অর্কজ্যোতি রায়, বিবেকানন্দ, আজ তোমাকে সাগ্নিকদার গল্প বলব। সাগ্নিকদার পুরো নাম সাগ্নিক সাঁতরা। প্রতিষ্ঠিত অভিনেতা। কলকাতা বেহালার বর্ধিষ্ণু পরিবারের ছেলে তিনি। অভিনয়টা যেমন ভালো জানে, ফিজিক্যাল ফিটনেসও দারুণ। মার্শাল আর্টও জানে। He is the known face of Tollywood Industry. সব ধরনের চরিত্রেই তিনি পারদর্শী। আর্টিস্ট ফোরামের সদস্য। এমনকী নির্বাচনেও দাঁড়িয়েছে।

অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে কখনওই পিছিয়ে থাকে না, সাগ্নিকদা। টেকনিশিয়ানদের বিপদে আপদে ঝাঁপিয়ে পড়তে আকছার তাঁকে দেখা যায়। টিভির পর্দায় যে মানুষটি দাপুটে মস্তান, রাউডি চরিত্রে ফুটে ওঠেন, সেই মানুষটি বাস্তবে কিন্তু একেবারেই উল্টো। মানুষের পাশে থাকেন। এটাই সাগ্নিকদার আসল চরিত্র।

এই জন্যই আমি সাগ্নিকদাকে খুবই ভালোবাসি। একজন প্রতিষ্ঠিত শিল্পী তাঁর জুনিয়র অভিনেতাদের কখনওই সহযোগিতা করতে চান না। কিন্তু ব্যতিক্রমী মানুষ তো থাকেনই। সাগ্নিকদা হল টলিউড ইন্ডাস্ট্রির সেই ব্যতিক্রমী ব্যক্তিত্ব। সিনেমা, অভিনয় সংক্রান্ত ব্যাপারে আমি যখনই পরামর্শ চেয়েছি, শত ব্যস্ততার মধ্যেও সাগ্নিকদা সুপরামর্শ দিয়ে সঠিক রাস্তাটাই দেখায়।

আমি তখন ছোট। ষোলো-সতেরো হবে। উচ্চমাধ্যমিক দিয়েছি। তখন থেকেই আমি সাগ্নি