শনিবার, ২৮শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

কোহলি তাঁর রাজ্যপাট খুইয়ে এখন জাতীয় দলের এক সিনিয়র ক্রিকেটার

News Sundarban.com :
জানুয়ারি ১৫, ২০২২
news-image

টেস্ট দলের নেতৃত্ব ছাড়ার পর বিরাট কোহলির (BCCI ) প্রতি সৌজন্য দেখাল বিসিসিআই (BCCI)।  বোর্ড সচিব জয় শাহও টিম ইন্ডিয়ার সদ্য প্রাক্তন হয়ে যাওয়া টেস্ট অধিনায়ককে নিয়ে উচ্ছসিত। তবে মাত্র চার মাসে তাঁর জীবন পুরোপুরি বদলে গেল। ভারতীয় ক্রিকেটের প্রবল প্রভাবশালী কোহ লি তাঁর রাজ্যপাট খুইয়ে এখন জাতীয় দলের এক সিনিয়র ক্রিকেটার।

২০১৪ সালে অস্ট্রেলিয়া সিরিজে প্রথম বার দেশকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন কোহলি। সেই সিরিজে মহেন্দ্র সিং ধোনি অবসর নেওয়ার পর পাকাপাকি ভাবে টেস্ট দলের নেতৃত্ব দেওয়ার ব্যাটন চলে যায় কোহলির হাতে। টেস্টে ভারতকে ৬৮টি ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি। এর মধ্যে ৪০টি ম্যাচে জিতেছেন এবং ১৭টি ম্যাচে হেরেছেন। ড্র হয়েছে ১১টি ম্যাচ। পরিসংখ্যান বলছে, সাদা জার্সিতে ভারতের সফলতম অধিনায়ক তিনি। তবে নিজের একগুঁয়েমি, একরোখা মনোভাব এবং বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে ইগোর লড়াইয়ের জেরে তাঁর পা পিছলে যাওয়ার বড় কারণ বলে মনে করছেন ক্রিকেট পন্ডিতরা।

এর সঙ্গে যোগ হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে লজ্জাজনক ভাবে টেস্ট সিরিজ হার। ১৬ সেপ্টেম্বর টি-টোয়েন্টি নেতৃত্ব থেকে সরে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা করার পর, ১৫ জানুয়ারি টেস্টের নেতৃত্বও ছেড়ে দিলেন কোহলি। কীভাবে কোহলি সাম্রাজ্যের পতন  ঘটল সেই দিকে একবার চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক।

১৬.০৯.২০২১– স্বেচ্ছায় টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা ঘোষণা করেছিলেন। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর যে তিনি এই ফরম্যাটে দলকে নেতৃত্ব দেবেন না জানিয়ে দিয়েছিলেন কোহলি। সেখান থেকেই বিতর্কের সূত্রপাত।-zee24