শুক্রবার, ২২শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

আবার সুন্দরবন জঙ্গলে বাঘের আক্রমণে মৃত্যু হল এক মৎস্যজীবীর

News Sundarban.com :
অক্টোবর ৪, ২০২১
news-image

বিশ্লেষণ মজুমদার, ক্যানিং – আবারও সুন্দরবন জঙ্গলে কাঁকড়া ধরতে গিয়ে মৃত্যু হল এক মৎস্যজীবীর। মৃতের নাম সেলিম মোল্লা (৩১)। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দুপুরে প্রত্যন্ত সুন্দরবনের গভীর জঙ্গলের চিলমারী খালে।

স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে বরিবার সকালে গোসাবার সাতজেলিয়ার মিত্রবাড়ির মৎস্যজীবী সেলিম মোল্লা ও তার দুই সঙ্গী গোপাল সরকার ও সুভাষ মিস্ত্রী কে সাথে নিয়ে কাঁকড়া ধরার জন্য সুন্দরবনের গভীর জঙ্গলের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলেন।সোমবার দুপুর বারোটা নাগাদ ওই তিন মৎস্যজীবী নৌকা নোঙর করে কাঁকড়া ধরার জন্য নদীখাড়িতে দোন ফেলছিলেন।

সেই সময় সুন্দরবনের গভীর জঙ্গল থেকে একটি বাঘ বেরিয়ে আসে। আচমকা সেলিম মোল্লার উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। তাকে এক ঝটকায় সুন্দরবনের গভীর জঙ্গলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। সঙ্গীরা বাঘের আক্রমণ দেখতে পেয়ে ওই মৎস্যজীবী কে উদ্ধারের জন্য বাঘের উপর ঝাপিয়ে পড়ে লাঠি ও কাঁকড়া ধরার শিক নিয়ে। বাঘে মানুষে লড়াই চলে প্রায় চল্লিশ মিনিট। বাঘ তার শিকার ছাড়তে নারাজ।

অন্যদিকে ওই মৎস্যজীবী কে বাঘের কবল থেকে উদ্ধার করতে মরিয়া হয়ে ওঠে সঙ্গীসাথীরা। এক সময় মৎস্যজীবীদের আক্রমনাত্মক জেদের কাছে হার মানে রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার। রণে ভঙ্গ দেয়। শিকার ছেড়ে গভীর জঙ্গলে পালিয়ে যায় বাঘ। এরপর সঙ্গীকে রক্তাক্ত অবস্থায় ঊদ্ধার করে নৌকায় তুলে গ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। অতিরিক্ত রক্তক্ষণেই নদীর মাঝপথেই নৌকার মধ্যে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে ওই মৎস্যজীবী। এরপর মৃতদেহ মিত্রবাড়ির গ্রামের ঘাটে পৌছায়। খবর পায় ওই মৎস্যজীবীর পরিবার পরিজন। আচমকা এমন মৃত্যুর খবর এলাকায় পৌঁছালে গোটা গ্রামে শোকের ছায়া নেমে আসে।