বুধবার, ২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

২৬ ফেব্রুয়ারি নেটফ্লিক্সে মুক্তি পেল পরিণীতি চোপড়া অভিনীত ‘দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন’ ছবিটি

News Sundarban.com :
ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২১
news-image

গতকাল অর্থাৎ ২৬ ফেব্রুয়ারি নেটফ্লিক্সে মুক্তি পেল পরিণীতি চোপড়া অভিনীত ‘দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন’ ছবিটি । ঋভু দাশগুপ্ত পরিচালিত এই ছবিতে মীরা কাপুর নামের এক তরুণীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন পরিণীতি। মীরা ‘এম্নেসিয়া’ নামের এক মানসিক রোগে আক্রান্ত। আর এই রোগের কারণে তরুণীটির জীবন থেকে কিছু বছরের স্মৃতি মুছে গেছে। মানে মীরা এই কয়েক বছরে তার সঙ্গে ঘটে যাওয়া সব ঘটনা ভুলে গেছে। তবে পরিণীতি ব্যক্তিগত জীবনের কিছু ভয়ংকর স্মৃতি চিরতরে ভুলে যেতে চান। এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেছেন।

পরিণীতি চোপড়া

কয়েক দিন ধরে পরিণীতি ব্যস্ত ছিলেন ‘দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন’ ছবির প্রচারণায়। এই সময় এক সাক্ষাৎকারে পরিণীতিকে প্রশ্ন করা হয় যে এমন কোনো তিক্ত স্মৃতি যা তিনি তাঁর জীবন থেকে মুছে ফেলতে চান।

পরিণীতি চোপড়া

তার জবাবে এই বলিউড অভিনেত্রী বলেছেন, ‘একসময় আমি খুবই মোটাসোটা ছিলাম। আর আমি যদি আমার সেই দিনগুলো স্মৃতি থেকে মুছে ফেলতে পারতাম, খুব ভালো হতো। আমি তখন কলেজে পড়তাম। তখন আমি দেখতে বাজে ছিলাম। আমি এতটাই মোটা ছিলাম যে আমাকে দেখে অসুস্থ মনে হতো। এখন আমি আমার জীবন এবং শরীর নিয়ে অত্যন্ত বেশি সচেতন। আমার খালি মনে হয় কলেজের সেই দিনগুলো চিরতরে মুছে ফেলতে পারলে খুবই ভালো হতো। সেই সময়ের ছবিগুলো দেখে আমি আজও ভয় পাই, রীতিমতো আঁতকে উঠি। আর আমি যদি আমার অতীতের জীবনে ফিরে যেতে পারতাম, তো খেলাধুলা নিশ্চয়ই করতাম। কারণ, আমি ছোটবেলায় নিজেকে ফিট দেখাতে চাই।’ ‘দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন’ ছবিতে পরিণীতির অভিনয় দারুণভাবে প্রশংসিত হয়েছে।

ছবিতে নিজের অভিনয় প্রসঙ্গে পরিণীতি বলেছেন, ‘এই ছবিতে আমি চরিত্রের গভীরে ঢুকে পর্দায় সেই চরিত্রটিকে জীবন্ত করে তোলার চেষ্টা করেছি। আমি এক মদ্যপের চরিত্রে অভিনয় করেছি, যা আমি আগে কখনো করিনি। বাস্তব জীবনে আমি মদ পান করি না। কিন্তু পর্দায় তা করতে হয়েছে। আমাদের পেশায় এটাই মজা। পর্দায় আমরা এমন অনেক কিছু করার সুযোগ পাই, যা বাস্তবে জীবনে কখনো করিনি।’

পরিণীতি চোপড়া

পরিণীতির সঙ্গে ‘দ্য গার্ল অন দ্য ট্রেন’ ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন বেশ কয়েকজন শক্তিমান তরুণ অভিনয়শিল্পী। অদিতি রাও হায়দারি, কীর্তি কুলহারি, অবিনাশ তিউয়ারি প্রমুখ। ছবিটি একই নামের একটি হলিউড ছবির পুনর্নির্মাণ। পলি হকিংসের ২০১৫ সালের একই নামের একটি বেস্টসেলার উপন্যাস থেকে ছবির গল্পটি নেওয়া হয়েছে। ২০১৬ সালে মুক্তি পাওয়া ওই ইংরেজি সিনেমার পরিচালক ছিলেন টেট টেইলর। হিন্দি ভাষার ছবিটি পরিচালনা করেছেন রিভু দাশগুপ্ত।
পরিণীতি চোপড়াকে শেষ দেখা গিয়েছিল ২০১৯ সালে সিদ্ধার্থ মালহোত্রার সঙ্গে ‘জাবারিয়া জোড়ি’ ছবিতে।