মঙ্গলবার, ৯ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

পৌষ মেলা না করার সিদ্ধান্ত

News Sundarban.com :
ডিসেম্বর ২৪, ২০২০
news-image

নিউজ সুন্দরবন ডেস্ক:  করোনা সতর্কতায় ইতিমধ্যেই বিশ্বভারতী পৌষ মেলা না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ফলে এবছর বীরভূমের পাশাপাশি বাংলার বাউলেরা ব্রাত্য হলেন, পেলেন না পৌষ মেলার মঞ্চের গান করার সুযোগও।

আশা ছিল জয়দেব মেলায় সুযোগ হবে কিন্তু করণা আবহে জয়দেব মেলা আদৌ হবে কিনা সেই নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। প্রাথমিকভাবে জয়দেব মেলায় ধর্মীয় রীতি মেনে পূজা অনুষ্ঠান করা হবে বলে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। কিন্তু আখড়া বানিয়ে বাউলদের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে কিনা তা নিয়ে এখনও সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি বীরভূম জেলা প্রশাসনl ফলে আদৌ জয়দেব মেলা হবে কিনা, হলে বাউলদের আখড়া স্থান হবে কিনা এসব বিষয় এখন বিশবাঁও জলে। আর তাই জীবন জীবিকার ক্ষেত্রে তাদের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বীরভূমের বাউলেরা।

করোনা আবহে প্রায় নয় মাস ধরে বাউল শিল্পীরা কোনও অনুষ্ঠান করতে পারেনি ফলে তাঁদের আর্থিক অবস্থা তলানিতে। ভেবেছিলেন, পৌষ মেলায় এবং জয়দেব মেলায় গানের সুযোগ মিলবে আর সেখানেই হবে বিভিন্ন দলের বায়না কিন্তু পৌষ মেলা স্থগিত থাকায় এবং জয়দেব বাউল মেলা অনিশ্চিত হয়ে পড়ায় তারা আজ দিশেহারা ।

আর এই পরিস্থিতিতে তাঁদের আক্ষেপ রাজনীতি গ্রাস করছে বাউলদের। রাজনীতির ক্রমবর্তমান আবহে বাউল পরিবারে এসে বাউলদের হাতের তৈরি রান্নার খাবার খেয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ স্বয়ং। মুখ্যমন্ত্রী অনুগামীদের পাশাপাশি বাউল শিল্পীদের নিয়ে রোড শো করবেন ২৯ ডিসেম্বর বোলপুরের রাস্তায়। আর এই আবহে রাজনীতির মধ্যে ঢুকে পড়েছে বাউল শিল্পীরাও করোনা আবহে বড় বড় সভা, রোডশো হলেও কেন মেলা হবে না? কেন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে শিল্পীদের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না?

সেই প্রশ্নও তুলেছেন বাউল শিল্পীরা। তাঁদের দাবি, বাংলার লোকশিল্প কে বাঁচাতে জীবন-জীবিকার প্রশ্নে রাঙ্গামাটির দেশ বীরভূমে অন্তত জয়দেবের বাউল মেলায় সুযোগ পান বাউল শিল্পীরা। জয়দেব মেলা চলুক তার পরম্পরা নিয়েই দাবি বীরভূমের বাউলদের।