শনিবার, ২১শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বাসন্তী ব্লকে  ২০০ বিজেপি কর্মী সমর্থক যোগ দিলেন তৃণমূলে 

News Sundarban.com :
অক্টোবর ১৮, ২০২০
news-image

নিউজ সুন্দরবন ডেস্ক: চলছে করোনার দাপট পাশাপাশি আম্ফান সাইক্লোন তছনছ করে দিয়েছে সমগ্র বাসন্তী ব্লক সহ সুন্দরবন এলাকা।আর সেই ভাঙনের চিহ্ন প্রতি পদে পদে বিরাজমান। প্রাকৃতিক শক্তির পাশাপাশি রাজনৈতিক শক্তিতে ভেঙে চুরমার হয়ে ছিন্নভিন্ন হয়ে গেল বাসন্তী ব্লকের বিজেপি।বরিবার বিকালে বাসন্তী ব্লকের তৃণমূল কংগ্রেসের পার্টী অফিসে এক কর্মী সভায় উত্তর মোকামবেড়িয়ার বিজেপির অঞ্চল সভাপতি জয়দেব হালদার,সাধারণ সম্পাদক রঞ্জন সরদার,উত্তর মোকামবেড়িয়ার ১১৮ নম্বর বুথ সভাপতি উত্তম মন্ডল সহ ২০০ জন বিজেপি কর্মী সমর্থক তৃণমূলে যোগদান করেন।বরিবার নবাগত তৃণমূলীদের হাতে দলীয় পতাকা তুলেদেন বাসন্তী ব্লক তৃণমূল সংগঠনের অন্যতম নেতা মন্টু গাজী।

তৃণমূল নেতা মন্টু গাজী জানিয়েছেন “এই ২০০ কর্মী সমর্থক দীর্ঘদিন ধরেই বিজেপির সমর্থক ছিলেন।তাঁরা তৃণমূলের সঙ্গে যুক্ত হলেন। লকডাউন ও আমফানের তাণ্ডবে এই সমস্ত কর্মী সমর্থদের পরিবারগুলির করুণ অবস্থায় সবসময় পাশে থেকেছে তৃণমূল। দলের তরফে তাঁদের কাছে বিভিন্ন সময়ে ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়েছিল। বিপদে তৃণমূলকে পাশে পেয়ে এবং দলীয় নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়ন কর্মযজ্ঞ দেখে তাঁরা দল পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেছেন।”

এদিন বিজেপি থেকে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করে নব্য তৃনমূলী জয়দেব হালদার, রঞ্জন সরদার, উত্তম মন্ডলরা জানিয়েছেন “বিজেপি একটি সাম্প্রদায়িক হিংস্র দল।  সাম্প্রদায়িকতার আগুনে সাধারন মানুষ কে জর্জরিত করে তুলেছে।সুন্দরবনের হিংস্র রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার থেকেও ভয়ঙ্কর সাম্প্রদায়িক দল এই বিজেপি। আমরা হাড়ে হাড়ে বুঝতে পেরেছি।আর সেই কারণে স্বাধীন ভাবে বাঁচার জন্য বিজেপির সঙ্গ ত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নিয়ে মা মাটি মানুষের মমতা ব্যানার্জীর আদর্শকে পাথেয় করে মন্টু গাজীর হাত ধরে  তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেছি।”