বুধবার, ১২ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

যাতায়াতের রাস্তা নিয়ে পরিবারিক বিবাদ,গুরুতর জখম ৩

News Sundarban.com :
সেপ্টেম্বর ১২, ২০২০
news-image

নিউজ সুন্দরবন ডেস্ক:  পারিবারিক বিবাদের জেরে গুরুতর জখম হলেন তিনজন। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দুপুরে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ক্যানিং থানার দাঁড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের গোবরামারি গ্রামে।ঘটনায় গুরুতর জখম হয়েছেন তোয়েব আলি মোল্লা, আমিন উদ্দিন মোল্লা ও মোহিন উদ্দিন মোল্লা।
স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে গোবরামারি গ্রামে একটি গোরস্থান রয়েছে। গোরোস্থানে সাধারণের যাতায়াতের জন্য একটি মাত্র রাস্তা রয়েছে। সেই রাস্তা দিয়ে গ্রামের সাধারণ মানুষজন যাতায়াত করেন। অভিযোগ গত দিন তিনেক আগে গোবরামারি গ্রামের বাসিন্দা আপিল উদ্দিন মোল্লা গোরোস্থানের যাতায়াতের রাস্তাটি জবর দখল করে ঘর করার চেষ্টা করে।

এমন কি ইট,বালিও সহ ইমারতি দ্রব্য রাস্তার উপর ফেলে রাখে। গ্রামবাসীরা এই যাতায়াতের রাস্তা নিয়ে প্রতিবাদে সরব হয়।শুক্রবার সন্ধ্যায় পাড়ায় একটি সালিশীসভা ও হওয়ার কথা ছিল। আরো অভিযোগ এমত অবস্থায় এদিন দুপুরে যাতায়াতের রাস্তার উপর পাকা কলম(সিমেন্টের পিলার) তোলার তোড়জোড় শুরু করে আপিল উদ্দিন মোল্লা ও তার পরিবারের সদস্যরা।
এদিকে দুপুরে স্থানীয় মসজিদ থেকে নমাজ পড়ে বাড়ি ফিরছিলেন তোয়েব আলি ও আমিন উদ্দিন মোল্লা। অভিযোগ গোরোস্থানের কাছাকাছি আসতেই আপিল উদ্দিন মোল্লা,সাবির মোল্লা,ছোট্টু মোল্লারা লাঠি,শাবল ,লোহার রড ও ধারালো দা নিয়ে আচমকা ঝাঁপিয়ে পড়ে তোয়েব আলি ও আমিন উদ্দিন মোল্লার উপর।

তাদেরকে বেধড়ক মারধোর করে ধারালো দা দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপ মারে।মারধোরে হাত থেকে তোয়েবদের বাঁচাতে দৌড়ে যায় মোহিন উদ্দিন মোল্লা। অভিযোগ তাকে ও বেধড়ক মারধোর করা হয়।মোল্লা পরিবারের এমন কান্ডকারখান দেখে দৌড়ে আসেন গ্রামবাসীরা। তাঁরা রক্তাক্ত অবস্থায় জখম তোয়েব আলি, আমিন উদ্দিন, মোহিনউদ্দিন কে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়। তোয়েব আলি ও আমিন উদ্দিনের মাথায় গুরুতর আঘাত লাগায় তাদের অবস্থা আশাঙ্কাজনক। ঘটনার বিষয়ে ক্যানিং থানায় চারজনের নামে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন আমিনউদ্দিন মোল্লা।
অভিযোগের ভিত্তিতে ক্যানিং থানার পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।