বৃহস্পতিবার, ৭ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শান্তিনিকেতনের বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে ব্যাপক সংঘর্ষ

News Sundarban.com :
আগস্ট ১৭, ২০২০
news-image

কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতিবিজড়িত শান্তিনিকেতনের ঐতিহাসিক পৌষ মেলার মাঠে প্রাচীর নির্মাণ ঘিরে আজ সোমবার শান্তিনিকেতনের বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। স্থানীয় একদল মানুষ এই পৌষ মেলার ঐতিহাসিক মাঠে প্রাচীর দেওয়ার ঘটনা মেনে নিতে পারছিলেন না। শনিবার থেকে তাঁরা ‘মেলার মাঠ বাঁচাও, শান্তিনিকেতন বাঁচাও’ নামে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পেজ খুলে ব্যাপক প্রচার চালাচ্ছিলেন। শনিবার থেকে প্রাচীর তোলা শুরু হলে এর বিরুদ্ধে তাঁরা আন্দোলনে নামেন। রোববার শান্তিনিকেতনের ব্যবসায়ী সমিতি আন্দোলনে নেমে দাবি তোলে, শান্তিনিকেতনের ঐতিহাসিক পৌষ মেলার মাঠে তারা প্রাচীর তুলতে দেবে না। এই দাবিতে মিছিল করে তারা।

আজ সোমবার সকালে বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী বিশ্বভারতীর অন্য কর্মকর্তাদের নিয়ে ছুটে আসেন পৌষ মেলার মাঠে। সেখানে তাঁর উপস্থিতিতে পে-লোডার সহযোগে শুরু হয় প্রাচীর নির্মাণের কাজ। এ সময় এলাকাবাসী জড়ো হয়ে প্রতিবাদ জানান। একপর্যায়ে তাঁরা বিশ্বভারতীর অস্থায়ী দপ্তরের তালা ভেঙে ব্যাপক ভাঙচুর চালান। বন্ধ করে দেন নির্মাণের কাজ। নষ্ট করেন নির্মাণসামগ্রী। ভেঙে ফেলেন বিশ্বভারতীর একটি ঐতিহাসিক গেটও। বিশ্বভারতী অভিযোগ করেছে, আন্দোলনকারীরা ঠিকাদার ও নির্মাণকর্মীদের মারধরও করেছেন।

এই ঘটনা শুনে উদ্বেগ প্রকাশ করেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। তিনি বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে। মুখ্যমন্ত্রী এ ব্যাপারে সার্বিক সহযোগিতা করার আশ্বাস দিয়েছেন রাজ্যপালকে। রাজ্যপাল এ কথা বলেছেন এক টুইট বার্তায়। ছবি: ভাস্কর মুখার্জি