বুধবার, ৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

আনলক থ্রি এর গাইডলাইন প্রকাশ কেন্দ্রের বন্ধই থাকছে ট্রেন, মেট্রো , আন্তর্জাতিক বিমান

News Sundarban.com :
জুলাই ৩০, ২০২০
news-image

আগস্টে খুলছে জিম, যোগাসন কেন্দ্র

নিউজ সুন্দরবন ডেস্ক: অতিমারীর আবহে অর্থনীতির চাকাকে সচল রাখতে তিম মাসেরও বেশি সারা দেশে টানা লকডাউন চালানোর পর ১লা জুন থেকে আনলক পর্ব শুরু করেছিল কেন্দ্র। তার দ্বিতীয় দফা বা আনলক টু পর্ব শেষ হচ্ছে শুক্রবার ৩১ শে জুলাই। তার আগে বুধবার আনলক থ্রি পর্বের বিস্তারিত নীতি নির্দেশিকা প্রকাশ করল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক।দেশে করোনা সংক্রমণের হার কিছুটা নিম্নমুখী হলেও পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিকতা থেকে বেশ কয়েক যোজন দূরে। তাই সামান্য কিছু পরিবর্তন ছাড়া আনলকের তৃতীয় পর্বেও দ্বিতীয় ধাপের মতো প্রায় সবরকমের বিধি নিষেধ বলবৎ থাকছে।৩১শে আগষ্ট পর্যন্ত চলা এই পর্বেও বন্ধ থাকছে ট্রেন, আন্তর্জাতিক বিমান, মেট্রো চলাচল।সিনেমা হল, বার, সুইমিং পুল, সিনেমা হল, বিনোদন পার্ক, অডিটোরিয়াম বন্ধই থাকবে। সব রকমের সামাজিক, ধর্মীয়, রাজনৈতিক জমায়েত বন্ধ রাখা হয়েছে।সামাজিক দূরত্ব বিধি ও কনটেইনমেন্ট এলাকায় কঠোর বাবে লকডাউন বজায় রাখতে রাজ্য সরকার গুলোকে বলা হয়েছে।তবে নিজেদের মূল্যায়নের ভিত্তিতে কনটেইনমেন্ট জোনের বাইরেও কোনও গতিবিধিতে বিধিনিষেধ জারি করার ব্যপারে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের প্রশাসনকে স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছে। তবে এই পর্বে তুলে নেওয়া হয়েছে নাইট কারফি্উ। পাশাপাশি জিমন্যাসিয়াম ও যোগব্যায়াম প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গুলোকেও সুরক্ষা বিধি মেনে ৫ই আগষ্ট থেকে খোলার ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

এক নজরে আনলক থ্রি

1/ উঠে গেল নাইট কার্ফু। অর্থাৎ রাতের মানুষের গতিবিধিতে কোনও নিষেধাজ্ঞা থাকছে না।

2/ আগামী ৫ অগস্ট থেকে খোলা যাবে যোগা প্রতিষ্ঠান এবং জিম। করোনাভাইরাস সংক্রমণ রুখতে ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে সেই সংক্রান্ত একটি ‘স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিওর’ (এসওপি) জারি করবে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

3/ মেট্রো পরিষেবা, সিনেমা হল, সুইমিং পুল, বিনোদন পার্ক, থিয়েটার, পানশালা, অডিটোরিয়াম, অ্যাসেম্বলি হলে বিধিনিষেধ থাকছে। সেগুলি ছাড়া বাকি সব গতিবিধিতে ছাড় মিলবে। শুধুমাত্র কনটেনমেন্ট জোনের বাইরেই সেই গতিবিধিতে ছাড় দিয়েছে কেন্দ্র। একইসঙ্গে দেশের সর্বত্র সামাজিক, রাজনৈতিক, খেলা, বিনোদন, শিক্ষামূলক, সাংস্কৃতিক এবং ধর্মীয় জমায়েত-সহ বড় অনুষ্ঠানে বিধিনিষেধ থাকবে।

4/ নিজেদের মূল্যায়নের ভিত্তিতে কনটেনমেন্ট জোনের বাইরেও কোনও গতিবিধিতে বিধিনিষেধ জারি করতে পারে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলি।

5 / নির্দিষ্ট ‘স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিওর’ (এসওপি) অনুযায়ী যাত্রীবাহী ট্রেন, ‘শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন’, ঘরোয়া উড়ান পরিষেবা, বিদেশে আটকে থাকা ভারতীয়দের যাতায়াত এবং নির্দিষ্ট ব্যক্তিদের বিদেশযাত্রা চালু থাকবে।

6 /মানুষ আন্তঃরাজ্য এবং অন্তঃরাজ্য যাতায়াত করতে পারবেন। পণ্যবাহী ট্রাক চলাচলেও ছাড় থাকছে। প্রতিবেশি দেশের সঙ্গেও পণ্যবাহী ট্রাক চলাচলে অনুমতি দেওয়া হয়েছে। সেজন্য আলাদাভাবে কোনও অনুমোদন বা ই-পারমিটের প্রয়োজন হবে না।