শনিবার, ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

লকডাউন ভাঙার প্রবণতা নিয়ে সতর্ক করলেন খাদ্যমন্ত্রী

News Sundarban.com :
এপ্রিল ১, ২০২০
news-image

 

মানুষ কেন ধৈর্য হারাচ্ছে বুঝতে পারছি না। একে অপরের গায়ে উঠে রেশন নিচ্ছেন কেন? বুঝুন একটু। সবাইকেই তো দেওয়া হবে। ৫ ধরনের কার্ড আছে। তার মধ্যে ৪ ধরনের কার্ড বিনামূল্যে রেশন পাচ্ছেন। সবাই রেশন নিন। কিন্তু দূরত্ব বজায় রেখে নিন।” বিনামূল্যে রেশন ঘিরে বিভিন্ন জায়গায় লকডাউন ভাঙার প্রবণতা নিয়ে সতর্ক করলেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রয় মল্লিক। এদিন সকাল থেকে নাগাড়ে বেড়েই চলেছে খাদ্যমন্ত্রীর ফোন। মুহূর্তে মুহূর্তে সবাই ফোন করছেন জোতিপ্রিয় মল্লিককে। ফোন ধরে তিনি প্রাণপণে বোঝানোর চেষ্টা করছেন মানুষ যাতে ভিড় না করেন।

প্রসঙ্গত, এদিন বিনামূল্যে রেশন ঘিরে অশান্তি যেমন কলকাতায় ঘটেছে। তেমনই জেলাতেও হয়রানির ছবি সামনে এসেছে। পুরুলিয়াতে ভিড় হঠাতে পুলিস লাঠিচার্জ করে বলে অভিযোগ। রেশনে কম জিনিস দেওয়ার অভিযোগে গ্রামবাসীদের সঙ্গে পুলিসের বাগবিতণ্ডা বেঁধে যায়। আর তারপরই উত্তেজিত জনতার ভিড়কে ছত্রভঙ্গ করতে পুলিস লাঠিচার্জ করে বলে অভিযোগ। ঘটনাস্থল পুরুলিয়ার বোরো থানার আঁকরো গ্রামে। ডিলার শিবপ্রসাদ মণ্ডল দীর্ঘদিন ধরেই উপভোক্তাদের কম রেশন সামগ্রী দিয়ে আসছেন বলে অভিযোগ। এদিন বিনামূল্যে রেশন সামগ্রী কম দেওয়ার অভিযোগে ক্ষোভে ফেটে  পড়েন স্থানীয় মানুষ। রেশন  দোকানে তালা দিয়ে ঘেরাও করে রাখেন। বিক্ষোভ দেখান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় বোরো থানার পুলিস। অভিযুক্ত ডিলারকে আটক করেছে পুলিস।

বিনামূল্যে রেশন প্রদান নিয়ে উত্তেজনা ছড়ায় বীজপুরের পাল্লাদহ এলাকাতেও। রেশন দোকানে চাল এবং গম দেওয়া নিয়ে উত্তেজনা ছড়ায়। বীজপুর থানার পুলিসের হস্তক্ষেপে পরে তা আয়ত্তে আসে। রেশন প্রাপকরা অভিযোগ করেন, তাঁরা সরকারি নির্দেশিকা অনুযায়ী চাল ও গম পাচ্ছেন না। সরকার মাথা পিছু ৫ কেজি করে চাল দিতে বলেছিল। সেইখানে রেশন দোকান মালিক কাউকে দেড় কেজি, কাউকে ২ কেজি আবার কাউকে ১ কেজি  করে চাল দিচ্ছেন।-zee24