সোমবার, ২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

হালখাতায় টাকা পরিশোধ না করায় বৃদ্ধ কে মার

News Sundarban.com :
ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২০
news-image

সঠিক সময়ে বাকি টাকা পরিশোধ করতে না পারায় এক বৃদ্ধকে বেধড়ক মারধোর করে দুটি হাত ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ উঠলো দুই যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাতে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার বাসন্তী থানার উত্তর মোকাম বেড়িয়ার হালদার পাড়ার কালিমন্দির এলাকায়। ঘটনায় গুরুতর জখম হয়ে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বছর ৫২ বয়সের বৃদ্ধ অনুপম মন্ডল। স্থানীয় সুত্রে জানাগেছে এলাকার দুই যুবক রাজু নস্কর ও ভোম্বল নস্কর। সম্পর্কে তারা দুই ভাই। এলাকায় একটি পান দোকান ও একটি পোল্ট্রি মুরগীর দোকান রয়েছে তাদের। বিগত তিনবছর আগে এই প্রোল্ট্রি দোকান থেকে মেয়ের বিয়ের জন্য মুরগীর মাংস নিয়েছিলেন বৃদ্ধ অনুপম মন্ডল।সেই সময় দেড় হাজার টাকা বাকীও রেখেছিলেন রাজু নস্কর ও ভোম্বল নস্করের কাছে। দীর্ঘদিন অতিবাহিত হয়ে গেলেও সেই বাকি টাকা পরিশোধ দেননি অনুপম বাবু। চলতি বছর দোকানের বাকি টাকা পরিশোধের এই মুরগীর মাংসের দোকানে হালখাতা অনুষ্ঠিত হয় গত শনিবার।শনিবার টাকা পরিশোধ করেন নি এই বৃদ্ধ।
সোমবার রাতে অনুপম মন্ডল ও তাঁর স্ত্রী অসীমা মন্ডল বকেয়া টাকার এক হাজার টাকা নিয়ে দোকানে জমা দিতে যায়। অভিযোগে টাকা দিতে দোকানের কাছে এই বৃদ্ধ পৌঁছানো মাত্র দুই ভাই রাজু নস্কর ও ভোম্বল নস্কর এই বৃদ্ধ কে রাস্তার উপর ফেলে বেধড়ক মারধোর করে।এমনকি লাথি,ঘুঁসি ও মারে বলে অভিযোগ। ব্যাপক মারধোরের হাত থেকে পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা বৃদ্ধ কে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে এই বৃদ্ধর দুটি হাতে এক্সরে হয়। রিপোর্টে দুটি হাত ভেঙে গেছে বলে জানা যায়। অন্যদিকে অনুপম মন্ডলের দুটি হাত ভেঙে যাওয়ায় তার অবস্থা আশাঙ্কাজনক হয়ে পড়লে তাকে কলকাতার হাসপাতালে স্থানান্তরিত করেন চিকিৎসকরা। এবিষয়ে বাসন্তী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।